ত্রলীগের সংঘর্ষের পর শাবি বন্ধ ঘোষণা, বোমা-গুলি উদ্ধার

ত্রলীগের সংঘর্ষের পর শাবি বন্ধ ঘোষণা, বোমা-গুলি উদ্ধার

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের দুই গ্রপের দফায় দফায় গুলিবর্ষণ, ককটেল বিস্ফোরণ এবং ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
একই সঙ্গে সব ক্লাস-পরীক্ষা বাতিল এবং সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। এ ছাড়া ছাত্রদের আবাসিক হল ত্যাগেরও নির্দেশ দেওয়া হয়।বুধবার সকালে রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্ত জানায় প্রশাসন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘অনিবার্য কারণবশত পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধ থাকার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। অদ্য ২১/১২/২০১৬ তারিখ সকাল ৮ ঘটিকা থেকে সকল ছাত্রহল থেকে ছাত্রদের হলত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একই সাথে আরো সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে যে, ০১/০১/২০১৭ পর্যন্ত হলসমূহ বন্ধ থাকবে। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘অনিবার্য কারণবশত পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে সকল ধরনের সভা, সমাবেশ, মিছিল, স্লোগান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর করা হবে।’বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আমিনুল হক ভূঁইয়া সমকালকে জানান, বুধবার সকালে সিন্ডিকেটের জরুরি সভা ডাকা হয়েছে। এ সভা থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মঙ্গলবার রাতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের সহ সভাপতি আবু সাঈদ আকন্দ, অঞ্জন রায় ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজিদুল ইসলাম সবুজের গ্রুপ সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান সমর্থিত গ্রুপকে ধাওয়া এবং কক্ষের দখল নেওয়ার পর সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।ঘটনার পর পুলিশ রাতে শাহপরান, বঙ্গবন্ধু ও সৈয়দ মুজতবা আলী হলে অভিযান চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র, হাতবোমা ও গুলি উদ্ধার করে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এরকম আরো লেখা...

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে। মন্তব্য করতে * চিহ্নিত স্থানগুলো পূরণ করতে হবে।

মন্তব্য মুছে ফেলুন

সর্বশেষ খবর

সর্বাধিক মন্তব্য

ভিডিও