অদূর ভবিষ্যতে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা, রাজধানী স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত

বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে দ্রুত হারে গলছে দুই মেরুর বরফ। প্রতিনিয়ত বাড়ছে সমুদ্রের পানিস্তর। বিশেষজ্ঞদের মতে, এর ফলে অদূর ভবিষ্যতে পানির তলায় চলে যেতে পারে সমুদ্রের গা ঘেঁষা বহু দেশ। 

বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে দ্রুত হারে গলছে দুই মেরুর বরফ। প্রতিনিয়ত বাড়ছে সমুদ্রের পানিস্তর। বিশেষজ্ঞদের মতে, এর ফলে অদূর ভবিষ্যতে পানির তলায় চলে যেতে পারে সমুদ্রের গা ঘেঁষা বহু দেশ।

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তাও তলিয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন বিজ্ঞানীরা। তারা মনে করছেন, ২০৫০ সালের মধ্যে জাকার্তা পানির তলায় চলে যেতে পারে। বিজ্ঞানীদের মতে, বছর ত্রিশের মধ্যেই ডুবে যেতে পারে জাকার্তার এক-তৃতীয়াংশ। উপকূলবর্তী সেই অংশেই বাস করেন প্রায় ১ কোটি মানুষ।

শহরের পরিকাঠামোগত পরিবর্তন এনেও কোনও সুরাহা হচ্ছে না। এর আগে শহরের রাস্তাঘাট উঁচু করার চেষ্টা করা হয়েছে। জাকার্তায় উপকূল বরাবর তৈরি করা হয়েছে বিশাল বাঁধও। কিন্তু, সব প্রচেষ্টাই মাটি হয়েছে।

জাকার্তাকে বাঁচানোর কোনও উপায় নেই বলেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এমতাবস্থায় দেশের রাজধানী স্থানান্তর করাই একমাত্র উপায় বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের কথা মেনে দ্রুত স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নিল ইন্দোনেশিয়ার সরকার।

ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি জোকো উইদোডো টুইটারে ঘোষণা করেন, আমাদের দেশের রাজধানী বোর্নিও দ্বীপে স্থানান্তরিত করা হবে।

বিষ্ণ উষ্ণায়নের প্রত্যক্ষ প্রভাব যে বেশি দূরে নেই, সেটাই মনে করিয়ে দিচ্ছে জাকার্তার পরিস্থিতি। এই সিদ্ধান্ত যে পৃথিবীর এক ভয়াবহ ভবিষ্যতের ইঙ্গিত, তা বলাই বাহুল্য। সূত্র-জি নিউজ

Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
free online course