অমিতাভ সেদিন যেভাবে মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরেন

যান, মিস্টার বচ্চনকে শেষবারের মত দেখে আসুন! মুম্বইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালের আইসিউয়ের বাইরে তখন দাঁড়িয়ে অমিতাভ ঘরণী জয়া বচ্চন। চিকিৎসকের কথা শুনে সেই মুহূর্তে চোখে কিছু দেখতে পাননি জয়া, গলার কাছে কিছু একটা দলা পাঁকিয়ে উঠেছে।

যান, মিস্টার বচ্চনকে শেষবারের মত দেখে আসুন! মুম্বইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালের আইসিউয়ের বাইরে তখন দাঁড়িয়ে অমিতাভ ঘরণী জয়া বচ্চন। চিকিৎসকের কথা শুনে সেই মুহূর্তে চোখে কিছু দেখতে পাননি জয়া, গলার কাছে কিছু একটা দলা পাঁকিয়ে উঠেছে।

সালটা ১৯৮২। ২৬ জুলাই মনমোহন দেশাইয়ের ছবি ‘কুলি’-র শ্যুটিং করতে ফিয়ে গুরুতর চোট পেয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। বেঙ্গালুরু থেকে প্রায় ১৬ কিলোমিটার দূরে চলছিল শ্যুটিং। পুনীত ইসারের সঙ্গে একটা ফাইট সিকোয়েন্স ছিল। অমিতাভকে লাফ দিতে হবে, সময়ের একটু গণ্ডগোল হয়ে যায়, পড়ে গিয়ে লিভারে মারাত্মক চোট পান অমিতাভ। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাথা ক্রমে বাড়তে থাকে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে বিগ বি-কে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। নিজের ব্লগে অমিতাভ লেখেন, ” ১৯৮২ সালের ২ আগস্ট ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালে আমি তখন জীবন আর মৃত্যুর মাঝে দোদুল্যমান। দ্বিতীয় অপারেশনের পর একটা লম্বা সময়ের জন্য আমি অজ্ঞান ছিলাম। জয়াকে ICU-তে যেতে বলা হয়, শেষবারের মত স্বামীকে দেখার জন্য। কিন্তু সেই সময় ডঃ উদওয়াদিয়া একটা শেষ চেষ্টা করেছিলেন, আর তাতেই মিরাকল হয়েছিল! তিনি একের পর এক করটিসোন ইঞ্জেকশন দিতে থাকেন, আর তারপরই আমার পা-টা কেঁপে ওঠে। জয়াই প্রথম সেটা লক্ষ্য করে, ও চেঁচিয়ে ওঠে, ‘দেখ ও বেঁচে আছে’! সূত্র: ১৮বাংলা.নিউজ

Download Best WordPress Themes Free Download
Premium WordPress Themes Download
Free Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
free download udemy paid course