অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস করোনায় আক্রান্তদের মৃত্যুহার বাড়াচ্ছে, দাবি মার্কিন চিকিৎসকের

অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মৃত্যুহার অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে। তার অন্যতম দৃষ্টান্ত আমেরিকা ও ইউরোপ। তাই আগে থেকেই সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। খাদ্যাভাস থেকে ‘আলট্রা প্রোসেসড ফুড’ সরিয়ে রাখতে হবে। এমনটাই পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক অসীম মালহোত্রা। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত প্রথম সারির এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক ও অধ্যাপক। প্রাণঘাতী করোনা থেকে থেকে বাঁচতে খাদ্যাভ্যাসের উপর নজরদানের পরামর্শ দিলেন তিনি।

অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মৃত্যুহার অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে।

তার অন্যতম দৃষ্টান্ত আমেরিকা ও ইউরোপ। তাই আগে থেকেই সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত।

খাদ্যাভাস থেকে ‘আলট্রা প্রোসেসড ফুড’ সরিয়ে রাখতে হবে।

এমনটাই পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক অসীম মালহোত্রা।

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত

প্রথম সারির এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক ও অধ্যাপক।

প্রাণঘাতী করোনা থেকে থেকে বাঁচতে খাদ্যাভ্যাসের উপর নজরদানের পরামর্শ দিলেন তিনি।

এই চিকিৎসকের মতে, অতিরিক্ত ওজন ও ওবেসিটি শরীরের

রোগ প্রতিরোধ মাত্রা কমিয়ে করোনা বৃদ্ধির প্রবণতাকে তরান্বিত করছে।

ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ আজকাল বেড়েই চলেছে।

এই তিন রোগই, যার পিছনে অন্যতম কারণ অতিরিক্ত মেদ ও ওজন।

এসব মৃত্যুর হার বাড়ার পিছনে অন্যতম কারণ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আমেরিকা ও যুক্তরাষ্ট্রে যারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন,

দেখা গিয়েছে তাদের ৬০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্কই অস্বাস্থ্যকর

খাদ্যাভাস ও জীবনযাপনে উল্লিখিত রোগগুলির শিকার ছিলেন।

আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান পত্রিকা ‘নেচার’-এ প্রকাশিত এক রিপোর্ট জানা যাচ্ছে,

টাইপ-২ ডায়াবেটিস ও মেটাবলিক সিনড্রমে আক্রান্তদের করোনায়

আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সম্ভাবনা সুস্থ মানুষের তুলনায় ১০ গুণ বেশি।

ডা. মালহোত্রা বলেছেন, এই রোগগুলির জন্য ব্যবহৃত

ওষুধের রোগ প্রতিরোধক বা মৃত্যুহার কমানোর ক্ষমতা যৎসামান্যই।

অর্থাৎ, এগুলো কোনও স্থায়ী সমাধান নয়। সুস্থ খাদ্যাভ্যাস ও জীবনপদ্ধতিই রোগের আসল দাওয়াই।

তাই ভারতীয়দের আলট্রা প্রোসেসড প্যাকেটেড খাদ্য পরিহার করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

কারণ এতে অধিক পরিমাণে শর্করা, স্টার্চ, অস্বাস্থ্যকর তেল থাকে।

থাকে অ্যাডিটিভিস ও প্রিজার্ভেটিভস। যা অবশ্যই বর্জনীয়।

পরিবর্তে যথেষ্ট শাকসবজি, ফলমূল, ডিম, মাছ, মাংস,

এমনকী প্রয়োজনে রেড মিটও খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
free download udemy paid course