আইপিএল অভিযান শেষ ধোনিদের

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলারদের সামনে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ল চেন্নাই সুপার কিংসের ব্যাটিং। ২০ ওভারে তিন বারের চ্যাম্পিয়নরা করে ৯ উইকেটে ১১৪ রান। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে ১০ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় মুম্বাই। ঈশান কিষাণ (৬৮) ও কুইন্টন ডি কক (৪৬) অপরাজিত থেকে যান। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথমবার ১০ উইকেটে ম্যাচ হারল চেন্নাই।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলারদের সামনে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ল চেন্নাই সুপার কিংসের ব্যাটিং।

২০ ওভারে তিন বারের চ্যাম্পিয়নরা করে ৯ উইকেটে ১১৪ রান।

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে ১০ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় মুম্বাই।

ঈশান কিষাণ (৬৮) ও কুইন্টন ডি কক (৪৬) অপরাজিত থেকে যান। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথমবার ১০ উইকেটে ম্যাচ হারল চেন্নাই।

এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল চেন্নাই ও মুম্বাই। সেই ম্যাচ জিতেছিল ধোনির দল। শুক্রবার সেই চেন্নাইকে বিধ্বস্ত করল মুম্বাই।

এতে এবারের টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকেই গেল চেন্নাই। অঙ্কের হিসাবে আশা বেঁচে থাকলেও চেন্নাইয়ের পক্ষে প্লে অফে পৌঁছানো আর সম্ভব নয়। প্রতিবার প্লে অফে খেলে চেন্নাই। এবার আর তা সম্ভব হলো না।

টস জিতে প্রথমে চেন্নাইকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় মুম্বাই। দলে একাধিক পরিবর্তন এনেও সুবিধা করতে পারল না চেন্নাই।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একা লড়াই করেছেন স্যাম কারেন। শেষ পর্যন্ত তিনি ৫২ রানে আউট হন বোল্টের বলে।

স্যাম কারেন রান পাওয়ায় চেন্নাই ১১৪ রান করে। তিনি ও ইমরান তাহির ৪৩ রানের পার্টনারশিপ গড়ায় একশো পেরোতে পারে চেন্নাই।

ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই বিপর্যয় নামে চেন্নাই শিবিরে। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে রুতুরাজ গায়কোয়াড়কে (০) এলবিডব্লিউ করেন ট্রেন্ট বোল্ট। যশপ্রীত বুমরা তার প্রথম ওভারেই অম্বতি রায়ুডু (২) ও জগদিসানকে (০) পর পর দুই বলে আউট করেন।

দ্বিতীয় ওভারেই ব্যাট করতে নামেন ধোনি। চেন্নাই ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দু প্লেসি রানের মধ্যে ছিলেন। তিনিও ১ রান করে ব্যর্থ এদিন।

পর পর দল যখন উইকেট হারাচ্ছে, তখন রবীন্দ্র জাদেজা ও ধোনির উপরে দায়িত্ব ছিল ইনিংস গড়ার। কিন্তু দিনটা ছিল মুম্বাই বোলারদের।

বোল্ট ফের আঘাত হানে চেন্নাই শিবিরে। তার বলে জাদেজা ৭ রানে আউট হন।

পাওয়ার প্লেতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে প্রবল চাপে ছিল চেন্নাই। ম্যাচের রাশ শুরু থেকেই চলে এসেছিল মুম্বাইয়ের হাতে।

ধোনিরা কিছুতেই আর ম্যাচে ফিরতে পারেননি।

চেন্নাই সমর্থকরা ধরে নিয়েছিলেন অধিনায়ক হয়তো জ্বলে উঠবেন। ধোনিও ব্যর্থ হন। রাহুল চহারের বলে মাত্র ১৬ রানে আউট হন তিনি।

দীপক চহারও (০) শিকার রাহুল চহারের। কুল্টার নাইলের বলে শার্দুল ঠাকুর (১১) ক্যাচ তুলে দেন সূর্যকুমার যাদবের হাতে। স্যাম কারেন একমাত্র রুখে দাঁড়ান মুম্বাই বোলারদের বিরুদ্ধে। ইমরান তাহির অপরাজিত থেকে যান ১৩ রানে।

এই ম্যাচ জিততে হলে চেন্নাই বোলারদের শুরু থেকেই উইকেট তুলতে হতো। কিন্তু ধোনির বোলাররা সমস্যায় ফেলতে পারেনি মুম্বাইকে।

ঈশান কিষাণ ও কুইন্টন ডি ককের দাপটে ১২.২ ওভারে ১১৬ রান করে মুম্বাই। মুম্বাই বোলারদের মধ্যে বোল্ট (৪-১৮), বুমরা (২-২৫) ও রাহুল চহার (২-২২) সফল।

Download Best WordPress Themes Free Download
Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
free download udemy course