আবরার হত্যার সংবাদ পড়তে গিয়ে কেঁদে ফেললেন উপস্থাপক

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারের হত্যার সংবাদ পড়তে গিয়ে কেঁদে ফেলেছেন এক বেসরকারি টেলিভিশনের সাংবাদিক। চ্যানেল-২৪ এর ‘ফারাবী হাফিজ’ নামের ওই সাংবাদিককে আবরারের দাফনের সংবাদ উপস্থাপনের সময় কান্না করতে দেখা গেছে।

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারের হত্যার সংবাদ পড়তে গিয়ে কেঁদে ফেলেছেন এক বেসরকারি টেলিভিশনের সাংবাদিক। চ্যানেল-২৪ এর ‘ফারাবী হাফিজ’ নামের ওই সাংবাদিককে আবরারের দাফনের সংবাদ উপস্থাপনের সময় কান্না করতে দেখা গেছে।

এ সময় তার কন্ঠেও জড়তা লক্ষ্য করা যায়। তবে মুহূর্তেই তিনি নিজেকে সামলে নেয়ার চেষ্টা করেন।

মঙ্গলবার ওই সাংবাদিকের এই ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। অনেকেই ওই সাংবাদিকের প্রশংসা করেছেন।

রোববার রাতের আবরার ফাহাদের হত্যার ঘটনায় দেশব্যাপী নিন্দার ঝড় ওঠে। শিক্ষক-রাজনীতিক, সাংবাদিক ও চিকিৎসকসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষ এ হত্যাকাণ্ডে তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

একইসঙ্গে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন শিক্ষার্থীরা। অবিলম্বে তারা এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছেন।

উল্লেখ্য, রোববার রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি থেকে অচেতন অবস্থায় ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই রাতে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন পিটিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার মরদেহে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

আবরার বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

এ ঘটনায় বুয়েটের শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদিকে আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে সোমবার সন্ধ্যার পর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ্।

Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
online free course