আবরার হত্যা: দোষী হলে শাস্তি চায় আসামিদের পরিবারও

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত, তাদের (আসামি) পরিবারের সদস্যরাও এমন নৃসংশতা মেনে নিতে পারছেন না। তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির চেয়েছে তারা।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত, তাদের (আসামি) পরিবারের সদস্যরাও এমন নৃসংশতা মেনে নিতে পারছেন না। তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির চেয়েছে তারা।

আববারকে যারা হত্যা করেছে তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আবরার হত্যায় সন্তান জড়িত থাকার খবরে, বিমর্ষ পরিবার। এমন নৃশংসতার বিষয় ভাবতেই পারছেন না তারা।

হত্যা মামলার এক নম্বর আসামি মেহেদী হাসানের বাবা বলছেন, আমার ছেলে এটার সাথে সম্পৃক্ত নয় আমি জানি, তারপরেও দোষী প্রমাণিত হলে বিচার দাবি করছি। তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে আসলে সে দোষী কিনা।

দুই নম্বর আসামি মুহতাসিম ফুয়াদের বাবা বলছেন, যদি সে সত্যি দোষী হয়, তবে আমরা তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

চার নম্বর আসামি মেহেদী হাসান রবিনের বাবা বলছেন, আমার ছেলে যদি হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকলে তদন্তে তা বেরিয়ে আসবে। দোষী প্রমাণিত হলে শাস্তি চাই।

সাত নম্বর আসামি মেফতাহুল ইসলাম জিয়নের বাবা বলছেন, লোমহর্ষক ঘটনায় সন্তান জড়িত থাকার খবরে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বাবা-মা। তবে তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে শাস্তি দাবি করেছেন তারাও।

হত্যা মামলার বাকি আসামিদের পরিবারের অনেককেই তাদের বাড়িতে পাওয়া যায়নি। কয়েকজনকে পাওয়া গেলেও কথা বলতে রাজি হননি তারা।

Download Premium WordPress Themes Free
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Nulled WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
free online course