ইডেন গার্ডেনকে হাসপাতাল করতে প্রস্তাব দিলেন গাঙ্গুলী

পুরো ভারত ২১ দিনের জন্য লকডাউন হয়ে গেছে। মানুষ এখন গৃহবন্দি হয়ে আছে। করোনা ছড়িয়ে পড়লে প্রয়োজন হবে কোয়ারেন্টিনের। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে চলমান লড়াইয়ে এগিয়ে এসেছে ক্রীড়া জগত। যে হারে করোনার প্রকোপ বাড়ছে কদিন বাদে হাসপাতালের জায়গা হবে সংকুলান, রোগি সামাল দিতে খেঁই হারিয়ে ফেলবেন ডাক্তাররা। সেই শঙ্কায়ই কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সকে হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করার পরামর্শ দিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

পুরো ভারত ২১ দিনের জন্য লকডাউন হয়ে গেছে। মানুষ এখন গৃহবন্দি হয়ে আছে। করোনা ছড়িয়ে পড়লে প্রয়োজন হবে কোয়ারেন্টিনের। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে চলমান লড়াইয়ে এগিয়ে এসেছে ক্রীড়া জগত। যে হারে করোনার প্রকোপ বাড়ছে কদিন বাদে হাসপাতালের জায়গা হবে সংকুলান, রোগি সামাল দিতে খেঁই হারিয়ে ফেলবেন ডাক্তাররা। সেই শঙ্কায়ই কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সকে হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করার পরামর্শ দিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

বিসিসিআই অন্যতম ধনী সংস্থা। দেশের এই বিপর্যয়ে বোর্ড কি কোনও অর্থ সাহায্য করবে? সৌরভের উত্তর, ‘এটা নিয়ে আমি সচিব জয় শাহ-এর সঙ্গে কথা বলব। তারপরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

তবে নিজের শহর কলকাতার জন্য সৌরভ যে তৈরি, সেটা তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন। বলে দেন, ‘যদি সরকার আমাদের সঙ্গে কথা বলে তা হলে আমরা ইডেনের সমস্ত রকম সুযোগ সুবিধা উজাড় করে দেব। এ নিয়ে কোনও সমস্যা নেই।’

হাওড়ার ডুমুরজলা ইন্ডোর স্টেডিয়ামকে ইতিমধ্যেই হাসপাতাল বানিয়েছে সরকার। প্রয়োজনে আরও স্টেডিয়াম নেওয়া হবে। সেই জন্যই আগাম ইডেন নিয়ে বার্তা দিয়ে রাখলেন সৌরভ।

রাতে একটি ভিডিও বার্তাও দেন সৌরভ। সেখানে আবারও সবাইকে নিময় মেনে চলার কথা বলেছেন। তাঁর কথায়, ‘কঠিন পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি আমরা। তবে এই লড়াইয়ে আমরা জিতব। ঘরে থাকাই এখন একমাত্র পন্থা। সেটাই করুন। সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করুন।’

আইপিএলের ভবিষ্যৎ নিয়েও মুখ খুলেছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ। করোনাভাইরাসের আতঙ্কে গোটা বিশ্ব জুড়েই খেলাধুলো এখন প্রশ্নচিহ্নের সামনে। সব টুর্নামেন্টই স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। আইপিএলের মতো হাইপ্রোফাইল টুর্নামেন্ট স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত। কিন্তু এখন যা অবস্থা, ১৫ এপ্রিলের পরেই যে সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে, সেই গ্যারান্টিও কেউ দিতে পারছেন না। মঙ্গলবার আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করার কথা ছিল বোর্ডের। সেটাও বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরাও বলেছেন, আগে দেশ। তারপর অন্য কথা।

সৌরভ বলেন, ‘যে দিন আইপিএল স্থগিত করা হয়েছিল, সে দিনও আমরা যে জায়গায় দাঁড়িয়ে ছিলাম, আজও তাই। দশ দিনে কোন কিছুই বদলায়নি। তাই এ নিয়ে আমি এখন কিছুই বলতে পারব না।’

Free Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
online free course