এই দম্পতি চা বিক্রি করে ঘুরেছেন ২৩টা দেশ!
শুধু চা বিক্রি করেই ২৩টা দেশ ঘুরেছেন এই দম্পতি!

ভারতের কোচিতে এই দম্পতি একটি ছোট চায়ের দোকান। এই দোকানেই ৫০ বছর ধরে চা বিক্রি করে আসছেন। আর সেই চা বিক্রির টাকাতেই ২৩টা দেশ ঘুরে ফেলেছেন তারা।

ভারতের কোচিতে এই দম্পতি একটি ছোট চায়ের দোকান। এই দোকানেই ৫০ বছর ধরে চা বিক্রি করে আসছেন। আর সেই চা বিক্রির টাকাতেই ২৩টা দেশ ঘুরে ফেলেছেন তারা।

কেরালার কোচির বাসিন্দা ৭০ বছরের বিজয়ন এবং তার ৬৮ বছরের স্ত্রী মোহনা। বিজয়ন জানান, ইতিমধ্যে সুইজারল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, পেরু, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, আমেরিকাসহ ২৩টা দেশ ঘুরেছেন তারা।

এবার তাদের তালিকায় রয়েছে সুইডেন, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, গ্রিনল্যান্ড, নরওয়ে। কিন্তু কীভাবে বিদেশযাত্রার এই বিশাল খরচ জোগান তারা?

১৯৬৩ সাল থেকে চা বিক্রি করছেন বিজয়ন। প্রথমে কোচির রাস্তায় রাস্তায় চা বিক্রি করতেন তিনি। পরে কোচিতে চায়ের দোকান খুলেন। ছোটবেলা থেকেই দু’জনের ইচ্ছা ছিল দেশ ভ্রমণের। ছোট সেই দোকানই তাদের স্বপ্নের উড়ানে সাহায্য করে।

তিনি জানান, তাদের দোকানে রোজ ৩০০ থেকে ৩৫০ গ্রাহক আসেন। তারা দু’জনে মিলে দৈনিক ৩০০ টাকা করে জমিয়ে রাখেন শুধুমাত্র বেড়ানোর খাতে। এতে বছরে ১ লাখ টাকার মতো জমে। কয়েকটা বছর এভাবে টাকা জমান।

বাকিটা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে নেন। পরে ৩ বছর ধরে সেই ঋণ শোধ করেন। ঋণ শোধ হওয়ার পর আবার শুরু করেন পরবর্তী বিদেশ ভ্রমণের তোড়জোড়। এভাবেই ২৩টি দেশ ঘুরে ফেলেছেন তারা।

দৈনন্দিন খরচ কমানোর জন্য দোকান এবং বাড়ির সমস্ত কাজ তারা নিজেরাই করে থাকেন। তাদের দোকানে একজনও কর্মচারী নেই। বাড়িতেও নেই কোনও পরিচারিকা।

কোচির ওই দম্পতি এখন সেলিব্রিটি। তাদের দোকান এক ডাকে চেনেন সকলে। বিদেশ সফর থেকে কী শিখলেন? বিজয়ন বলেন, ঘুরলে আপনার মন পাল্টে যায়, সংস্কৃতিরও বদল ঘটে।

আর পাঁচজন দম্পতির মতো বিজয়ন ও মোহনারও দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে অনেক মতবিরোধ হয়েছে। তবে তাদের মধ্যে একটাই মিল। দু’জনেই দেশ-বিদেশ ঘোরার স্বপ্ন নিয়ে বাঁচেন। সেই স্বপ্নের জোরেই এখন তাদের কাহীনি সোশ্যাল মিডিয়া সেনসেশন।

Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
udemy course download free