এখনো ট্রায়ালে রয়েছে পুলিশের ‘মুভমেন্ট পাস’ অ্যাপ

তিনি বলেন, অ্যাপটি পুলিশের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। তারা সেটি ব্যবহার করে সুবিধা-অসুবিধা সম্পর্কে আমাদের জানাবেন। এরপর সার্বিক বিষয় যাচাই করে এটার পারফেকশন দেয়ার চেষ্টা করবো। শেষ পর্যন্ত যদি মনে হয় জনসাধারণের কল্যাণে ও স্বার্থ রক্ষায় এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে তখনই ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। অল্প সময়ের ভেতরই আমরা এটি করতে পারবো।

জরুরি পণ্য সামগ্রী ও সেবা সরবরাহের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের মুভমেন্ট পাস দেয়ার কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে পুলিশ।

আর এজন্য এরইমধ্যে একটি অ্যাপ ডেভেলপ করা হয়েছে।

যা অন ট্রায়ালে (পরীক্ষাধীন) রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) এক ভিডিও বার্তায় পুলিশ সদর দফতরের

এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, অ্যাপটি পুলিশের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

তারা সেটি ব্যবহার করে সুবিধা-অসুবিধা সম্পর্কে আমাদের জানাবেন।

এরপর সার্বিক বিষয় যাচাই করে এটার পারফেকশন দেয়ার চেষ্টা করবো।

শেষ পর্যন্ত যদি মনে হয় জনসাধারণের কল্যাণে ও স্বার্থ রক্ষায়

এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে তখনই ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

অল্প সময়ের ভেতরই আমরা এটি করতে পারবো।

মুভমেন্ট পাস ওয়েবসাইটে দেওয়া এক নোটিশে জানানো হয়েছে,

করোনা পরিস্থিতিতে জনগণের চলাচলের জন্য

‘মুভমেন্ট পাস’ অ্যাপটি এখনো নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়নি।

অ্যাপটির পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুধুমাত্র পুলিশ অফিসারদের পর্যায়ে সীমিত রাখা হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা থেকে বিরত থাকুন।

জানা গেছে, শুধুমাত্র জরুরি সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অর্থাৎ জরুরি পণ্য পরিবহন,

সেবাপ্রদান, ব্যবসায়ী ও চাকরিজীবীদের যাচাই-বাছাই করে এ পাস দেয়া হবে।

পুলিশ সুত্র জানিয়েছে, মুদি দোকানে কেনাকাটা, কাঁচা বাজার, ওষুধপত্র,

চিকিৎসা, চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয়,

পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসা ও অন্যান্য ক্যাটাগরিতে দেয়া হবে এই পাস।

পাসধারী ব্যক্তি বাধামুক্তভাবে সড়কে চলাচল করতে পারবেন।

যাদের বাইরে চলাফেরা প্রয়োজন কিন্তু কোনো ক্যাটাগরিতেই পড়েন না

তাদের অন্যান্য ক্যাটাগরিতে পাস দেয়ার বিষয়ে বিবেচনা করা হবে।

পাস সংগ্রহের জন্য এই ওয়েবসাইটে (https://movementpass.police.gov.bd) গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

রেজিস্ট্রেশনের জন্য আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স,

পাসপোর্ট, জন্ম নিবন্ধন, স্টুডেন্ট আইডি ইত্যাদি ব্যবহার করা যাবে।

সড়কে কোথাও চলাচলের কারণে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলে

এই পাস দেখালেই তার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে যেতে দেয়া হবে।

Free Download WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Best WordPress Themes Free Download
Free Download WordPress Themes
udemy paid course free download