এবার মিরপুরে চালু হচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্স

হল সংকটে যখন সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি ক্রমশই হতাশায় নিমজ্জিত তখন আশার আলো জ্বেলে দিলো স্টার সিনেপ্লেক্স। দেশজুড়ে মান সম্মত সিনেপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। তারই অংশ হিসেবে সম্প্রতি রাজধানীর ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভারে একটি শাখা চালু করেছে।

হল সংকটে যখন সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি ক্রমশই হতাশায় নিমজ্জিত তখন আশার আলো জ্বেলে দিলো স্টার সিনেপ্লেক্স। দেশজুড়ে মান সম্মত সিনেপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। তারই অংশ হিসেবে সম্প্রতি রাজধানীর ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভারে একটি শাখা চালু করেছে।

এবার রাজধানীর মিরপুরের সিনেপ্রেমীদের জন্য সুখবর দিয়েছে স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। সেখানে নির্মাণ করা হচ্ছে মাল্টিপ্লেক্স। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের মিডিয়া মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ।

জানুয়ারিতে রাজধানীর ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভারে যাত্রা শুরু করেছে স্টার সিনপ্লেক্স। যাত্রা শুরুর প্রক্রিয়ায় রয়েছে মহাখালীতে। ইতোমধ্যে মহাখালীর সিনেপ্লেক্সটির বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এছাড়াও রাজধানীর উত্তরা ও পূর্বাচলে স্টার সিনপ্লেক্সের চেইন চালুর পরিকল্পনা রয়েছে।

মিরপুরে স্টার সিনপ্লেক্সের চেইন চালু হবে ২ নম্বর সেকশনের সনি সিনেমা হলের নতুন নির্মিত ভবনে। আগামীকাল সোমবার স্টার সিনেপ্লেক্স ও সনি সিনেমা হল কর্তৃপক্ষের মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে।

স্টার সিনেপ্লেক্সের মিডিয়া মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘স্টার সিনেপ্লেক্সের নতুন এই শাখায় আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত অ্যাটমস ডলবি সাউন্ড সিস্টেম, সিলভার স্ক্রিনসহ একটি পূর্ণাঙ্গ মাল্টিপ্লেক্সের সব ধরনের সুবিধা থাকবে। মিরপুরের সিনেমাপ্রেমীদের আগ্রহেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

এই প্রসঙ্গে সনি সিনেমা হলের মালিক চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিচালক মোহাম্মদ হোসেন বলেন, ‘দর্শকের জন্যই সিনেমা হল। তাই দর্শকের রুচিকে প্রাধান্য দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সনি সিনেমা হলের যে বিল্ডিংটি সেখানে এখন মাল্টিপ্লেক্স হয়েছে যেটি সনি স্কয়ার নামে পরিচিত।

সেখানে তিনটি সিনেপ্লেক্সের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেগুলো স্টার সিনেপ্লেক্স পরিচালনা করবে। যেহেতু আমাদের এখানে স্টার সিনেপ্লেক্স খুবই জনপ্রিয় তাই তাদের সঙ্গে নিয়ে আমরা এটি চালু করছি। আশা করছি আমাদের এই যাত্রা সফল হবে। আগামীকাল বিস্তারিত জানাবো।’

প্রসঙ্গত, দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের বিশ্বমানের প্রেক্ষাগৃহ উপহার দেয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে যাত্রা শুরু করে ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’। হলিউডের নতুন নতুন সব ছবির পাশাপাশি সুস্থধারার দেশীয় ছবিও নিয়মিতভাবে প্রদর্শিত হচ্ছে এখানে।

অন্যদিকে আড়াই বিঘা জমিতে ১৯৮১ সালে সনির নির্মাণকাজ শুরু হয়। বেশ কয়েক বছর কাজ চলে। ১৯৮৬ সালের ১৬ আগস্ট লড়াকু ছবি প্রদর্শনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয়। এরপর থেকে সনি সিনেমা হলের সুনাম সর্বত্র ছড়িয়েছে। রাস্তার যে মোড়ে সনির অবস্থান, ওই মোড়কে ‘সনির মোড়’ হিসেবেই চেনে গণপরিবহনের কর্মী থেকে শুরু করে স্থানীয় ব্যক্তিরা।

চলচ্চিত্রপাড়াতেও এই হলটির গুরুত্ব অনেক। সিনেমার প্রযোজকদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষ সারিতে থাকে সনি সিনেমা হলের নাম। বছর দুই আগেই হলটিতে সংস্কার করা হয়েছে। এবার সেখানে চালু হতে যাচ্ছে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্বলিত সিনেপ্লেক্স।

Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
free download udemy paid course