এসকে সিনহার ‘জুডিশিয়াল ক্যু’ করার ইচ্ছে ছিল: আইনমন্ত্রী

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার সমালোচনা করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘উনার মধ্যে জুডিশিয়াল ক্যু করার একটা অভিপ্রায় ছিল। তার কারণে অনেক উন্নয়ন কাজ ব্যাহত হয়েছে।’

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার সমালোচনা করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘উনার মধ্যে জুডিশিয়াল ক্যু করার একটা অভিপ্রায় ছিল। তার কারণে অনেক উন্নয়ন কাজ ব্যাহত হয়েছে।’

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়েরর লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সমন্বয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভা পরিচারনা করেন লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘যে মুহূর্তে আমরা আইনের শাসনের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করবো সেই মুহূর্তে লেজিসলেটিভ বিভাগের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তার কারণ হচ্ছে, কোনো আইনই কিন্তু এই লেজিসলেটিভ বিভাগের আওতার বাইরে যেতে পারে না। সেটা অনুধাবন করেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বিভাগ সৃষ্টি করেছেন।’

লেজিসলেটিভ বিভাগের কর্মকর্তাদের দক্ষতা বাড়ানোর লক্ষ্যে বিদেশে উচ্চতর প্রশিক্ষণ দেওয়ার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে আনিসুল হক বলেন, মন্ত্রণালয়ের উন্নয়নে প্রয়োজনীয় সব ধরণের উদ্যোগ নেওয়া হবে। উপ-সচিবদের গাড়ি সুবিধা পাওয়ার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সকলেই বাংলাদেশে বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করি। বঙ্গবন্ধু বৈষম্য বিলোপ ও ন্যায়বিচারের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন। ফলে, আইন মন্ত্রণালয়ে বৈষম্য তৈরির কোনো সুযোগ নেই।’

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়সহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে ২০১৭ সালের ১৩ অক্টোবর রাতে অস্ট্রেলিয়া যান এসকে সিনহা। দেশ ছাড়ার আগে তিনি লিখিত বক্তব্যে সাংবাদিকদের জানান, তিনি অসুস্থ নন। এর কিছু দিন পর তিনি বিদেশ থেকেই পদত্যাগপত্র পাঠান। এরপর চলে যান কানাডা হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে।

Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes
udemy course download free