করোনায় মারা যাওয়া ৭৩ শতাংশ পঞ্চাশোর্ধ্ব, শীর্ষে ঢাকা

ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, করোনায় মারা যাওয়া দুই হাজার ১৫১ জনের মধ্যে ০-১০ বছরের ১৩, ১১-২০ বছরের ২৫, ২১-৩০ বছরের ৭১, ৩১-৪০ বছরের ১৫৫, ৪১-৫০ বছরের ৩২৩, ৫১-৬০ বছরের ৬২৪ এবং ৬০ বছরের বেশি ৯৪০ জন। অপরদিকে আট বিভাগের মধ্যে মারা যাওয়া ৫১ দশমিক ৩৩ শতাংশ ঢাকার, ২৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ চট্টগ্রামের, ৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ রাজশাহীর, ৪ দশমিক ৫১ শতাংশ খুলনার, ৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ বরিশালের, ৪ দশমিক ২৩ শতাংশ সিলেটের, ৩ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ রংপুরের এবং দুই দশমিক ৪২ শতাংশ ময়মনসিংহ বিভাগের।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে মঙ্গলবার (৭ জুলাই) পর্যন্ত মোট দুই হাজার ১৫১ জন মারা গেছে।

এর মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৭০৩ এবং নারী ৪৪৮।

বয়স বিশ্লেষণে দেখা গেছে, মোট মারা যাওয়াদের ৭৩ শতাংশের বয়স ৫০ বছরের বেশি। আর ঢাকা বিভাগে সবেচেয়ে বেশি মারা গেছে।

মঙ্গলবার নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, করোনায় মারা যাওয়া দুই হাজার ১৫১ জনের মধ্যে ০-১০ বছরের ১৩, ১১-২০ বছরের ২৫, ২১-৩০ বছরের ৭১, ৩১-৪০ বছরের ১৫৫, ৪১-৫০ বছরের ৩২৩, ৫১-৬০ বছরের ৬২৪ এবং ৬০ বছরের বেশি ৯৪০ জন।

অপরদিকে আট বিভাগের মধ্যে মারা যাওয়া ৫১ দশমিক ৩৩ শতাংশ ঢাকার, ২৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ চট্টগ্রামের, ৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ রাজশাহীর, ৪ দশমিক ৫১ শতাংশ খুলনার, ৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ বরিশালের, ৪ দশমিক ২৩ শতাংশ সিলেটের, ৩ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ রংপুরের এবং দুই দশমিক ৪২ শতাংশ ময়মনসিংহ বিভাগের।

তিনি আরও বলেন, দেশে করোনা পরীক্ষায় আরও একটি ল্যাব সংযুক্ত হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ৭৪টি ল্যাবরেটরিতে ১৩ হাজার ১৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৩ হাজার ৪৯১টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ৮ লাখ ৭৩ হাজার ৪৮০টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক হাজার ৯৫৩ জন। এতে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৭৮ হাজার ১০২ জনে।

Premium WordPress Themes Download
Download Best WordPress Themes Free Download
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
free download udemy course