করোনা নিয়ে সতর্কতাকারী সেই ক্যাপ্টেন বরখাস্ত

মার্কিন নৌবাহিনীর বিমানবাহী জাহাজ ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে যথেষ্ট পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে দিন কয়েক আগে মন্তব্য করেছিলেন ওই জাহাজের ক্যাপ্টেন। এ ঘটনায় তাকে অবশেষে অপসারণ করেছে মার্কিন নৌবাহিনী।

মার্কিন নৌবাহিনীর বিমানবাহী জাহাজ ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে যথেষ্ট পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে দিন কয়েক আগে মন্তব্য করেছিলেন ওই জাহাজের ক্যাপ্টেন। এ ঘটনায় তাকে অবশেষে অপসারণ করেছে মার্কিন নৌবাহিনী।

জাহাজটির ক্যাপ্টেন ব্রেট ক্রোজিয়ার তার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে লেখা এক চিঠিতে মার্কিন সেনাদের মৃত্যু ঠেকাতে পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ করেছিলেন।

তবে দায়িত্বপ্রাপ্ত মার্কিন নৌবাহিনী সচিব থমাস মোডলি মনে করছেন, ওই কমান্ডার ‘অত্যন্ত দুর্বল মাপকাঠিতে যাচাই করে’ মন্তব্য করেছেন।

বিভিন্ন রিপোর্টে জানা যায় ওই জাহাজে থাকা অন্তত ১০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার নৌবাহিনী সচিব থমাস মোডলি সাংবাদিকদের জানান, চিঠিটি মিডিয়ার সামনে ফাঁস করার অভিযোগে ক্যাপ্টেন ক্রোজিয়ারকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘ওই চিঠিটি এমন একটি ধারণা দেয় যে নৌবাহিনী তার প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছে না। এটা এমন একটা ধারণা তৈরি করে যে নৌবাহিনী তাদের কাজ করছে না, সরকার তাদের কাজ করছে না। যেটা একেবারেই সত্য নয়।’

জাহাজটিতে সংক্রমিত হননি, এমন ৪ হাজার ক্রুকে গুয়ামে কোয়ারেন্টিন করা হচ্ছে। সেখানে স্থানীয়দের সাথে সংস্পর্শে না এসে তারা যতদিন ইচ্ছা থাকতে পারবে বলে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপটির গভর্নর জানিয়েছেন।

ক্যাপ্টেন ক্রোজিয়েরের চিঠিতে কী ছিল?

জাহাজের ক্রু’দের আবদ্ধ জায়গায় বসবাস করতে হচ্ছে বলে সেখানে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি দ্রুত অবনতি হচ্ছে বলে ক্যাপ্টেন ক্রোজিয়ের তার চিঠিতে পেন্টাগনকে সতর্ক করেছিলেন।

৩০শে মার্চে লেখা চার পৃষ্ঠার ঐ চিঠিতে তিনি লেখেন: ‘আমরা যুদ্ধের মধ্যে নেই। নাবিকদের মারা যাওয়ার প্রয়োজন নেই।’

জাহাজ থেকে সংক্রমণমুক্ত ক্রুদের সরিয়ে নিয়ে আলাদা করতে দ্রুত সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান ক্যাপ্টেন ক্রোজিয়ার। চিঠিটি পরে স্যান ফ্রান্সিসকো ক্রনিকলে ছাপা হয়।

এই ঘটনায় কী প্রতিক্রিয়া

মার্কিন কংগ্রেসের সশস্ত্র বাহিনী বিষয়ক কমিটির ডেমোক্রেটিক নেতাদের এক বিবৃতিতে উঠে আসে: ‘ক্যাপ্টেন ক্রোজিয়ার নিশ্চিতভাবে চেইন অব কমান্ড ভঙ্গ করেছেন, তবে এই সঙ্কটময় সময়ে তাকে অব্যাহতি দেয়া অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করবে এবং আমাদের বাহিনীর সদস্যদের আরো ঝুঁকির মধ্যে ফেলবে এবং তাদের প্রস্তুতিতে ব্যাঘাত ঘটাবে।’

তারা আরও বলেন, ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের কারণে যে সঙ্কট তৈরি হয়েছে, পূর্ণ তদন্ত ছাড়া কমান্ডিং অফিসারকে সরিয়ে আনার মাধ্যমে সেই সমস্যার সমাধান হবে না।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Premium WordPress Themes Download
online free course