কেজরিওয়ালের জয়ে আম আদমিতে একদিনেই যোগ দিল ১০ লাখ

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নায়কের সম্মান পাচ্ছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ৭০ আসনের দিল্লি বিধানসভা কেন্দ্রে ৬২ আসন জিতে নিয়েছে তার আম আদমি পার্টি। বিজেপি পেয়েছে মাত্র ৮টি আসন। তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মসনদে বসতে যাচ্ছেন তিনি। আগামী রবিবার শপথ নেবেন তিনি। মঙ্গলবার ফলাফল ঘোষণার পরেই আম আদমি পার্টিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক লেগেছে।

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নায়কের সম্মান পাচ্ছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ৭০ আসনের দিল্লি বিধানসভা কেন্দ্রে ৬২ আসন জিতে নিয়েছে তার আম আদমি পার্টি। বিজেপি পেয়েছে মাত্র ৮টি আসন। তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মসনদে বসতে যাচ্ছেন তিনি। আগামী রবিবার শপথ নেবেন তিনি। মঙ্গলবার ফলাফল ঘোষণার পরেই আম আদমি পার্টিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক লেগেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির তথ্য মতে, আম আদমি পার্টিতে যোগ দেওয়ার জন্য অনেকে ফোন করেছে। এক টুইট বার্তায় আপের পক্ষ থেকে জানানো হয়, জয় ঘোষণার পর ১০ লাখের মতো মানুষ দলটিতে যোগ দেওয়ার আবেদন করে। অন্য আরেক টুইট বার্তায় বলা হয়, প্রায় ১১ লাখ ভারতীয় দলটিতে যোগ দিয়েছে।

এর আগে অধিকাংশ বুথ ফেরত জরিপ অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি তথা আপের সহজ জয় দেখিয়েছিল এবারের নির্বাচনে। ছয়টিরও বেশি জরিপে সমষ্টিগত হিসেব পূর্বাভাস দিয়েছিল ৭০টি আসনের মধ্যে ৫৬টিতেই জয়ী হবে আপ। কিন্তু আম আদমি পার্টি ৬২টি আসনে জয়ী হয়েছে। আর বাকি ৮টি আসন পেয়েছে বিজেপি। এবারের নির্বাচনে কংগ্রেস একটিও আসন পায়নি।

২০১৫ সালে ৭০টি আসনের মধ্যে ৬৭টিতেই জিতে বিরোধীদের ধুয়েমুছে একরকম সাফ করে দেয় অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি।

কিন্তু ক’মাস আগে, ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের নিরিখে চিত্রটা একদম উলটো। ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৬৫টিতে এগিয়ে ছিল বিজেপি। পাঁচটিতে কংগ্রেস। আপ একটিতেও নয়। লোকসভার সাতটি আসনের সাতটিতেই জিতেছিল বিজেপি।

২০১৪ সালের লোকসভা ভোট, যে ভোটে জিতে প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী হন নরেন্দ্র মোদি, সেই ভোটেও বিজেপি দিল্লিতে সাতে সাত জিতেছিল। কিন্তু পরের বছরই বিধানসভা ভোটে আম আদমি পার্টি স্রোতে ভেসে গিয়েছিল বিজেপি।

এদিকে জয়ের খবর আসতেই, নীল-সাদা বেলুন নিয়ে উৎসবে মাতে আম আদমি পার্টি তথা আপের নেতা কর্মী সমর্থকরা।

তবে কেজরিওয়াল বলেছেন, এই জয় তার নয়। এটি দিল্লির জয়, সেই সমস্ত পরিবারের জয়, যারা তাকে তাদের সন্তান হিসেবে দেখেছেন। যে পরিবারগুলি ২৪ ঘণ্টা জল, বিদ্যুৎ এবং শিক্ষা সুবিধা পেয়েছেন। দিল্লির মানুষ নতুন ধারার রাজনীতির পক্ষে রায় দিয়েছে আর সেটি হলো কাজের রাজনীতি।

Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
udemy paid course free download