গোপন অ্যাকাউন্টের তথ্য সরকারকে দিচ্ছে সুইস ব্যাঙ্ক

সুইস ব্যাঙ্কে যে সব ভারতীয় অর্থ গচ্ছিত রেখেছিলেন; তাদের প্রথম তালিকা ভারতের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। ভারতীয়দের এই তালিকা দেশটির সরকারের কাছে হস্তান্তরের তথ্য জানিয়েছে সুইজারল্যান্ড।

সুইস ব্যাঙ্কে যে সব ভারতীয় অর্থ গচ্ছিত রেখেছিলেন; তাদের প্রথম তালিকা ভারতের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। ভারতীয়দের এই তালিকা দেশটির সরকারের কাছে হস্তান্তরের তথ্য জানিয়েছে সুইজারল্যান্ড।

চলতি বছরের জুলাই ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এক প্রতিবেদনে জানায়, অটোমেটিক এক্সচেঞ্জ অব ইনফরমেশন (এইওআই) কর্মসূচির আওতায় যেসব ভারতীয় নাগরিকের সুইস ব্যাঙ্কে বর্তমানে অ্যাকাউন্ট রয়েছে সেগুলোর আর্থিক তথ্য ভারত সরকারকে দেয়া হবে।

২০১৮ সালে যেসব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, সেগুলোর তথ্যও ভারতের ক্ষমতাসীন সরকারকে দেয়া হবে। পরবর্তী দফায় এ সম্পর্কিত তথ্য ভারতের হাতে আসবে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে। ২০১৬ সালে ভারত ও সুইজারল্যান্ড ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য আদানপ্রদান সম্পর্কিত একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে; যা ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়।

রিপোর্টিং স্ট্যান্ডার্ড সিস্টেমের আওতায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সুইস ব্যাঙ্কের তথ্য আদান-প্রদানের ব্যবস্থা চালু রয়েছে। এই পদ্ধতি চালু করেছে অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কোঅপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ওইসিডি)।

দুটি সুইস অ্যাজেন্সি বলছে, চলতি বছর মোট ৭৫টি দেশকে এ সম্পর্কিত তথ্য দেয়া হচ্ছে; যার একটি ভারত। গত বছর ৩৬টি দেশকে এ ধরনের তথ্য সরবরাহ করা হয়েছিল।

ভারতীয়রা কত পরিমাণ সম্পদ সুইস ব্যাঙ্কের মজুত রেখেছেন; সে সম্পর্কিত তথ্য জানানো হবে। ২০১৮ সালে জুরিখের সুইস ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক জানিয়েছিল, তিন বছর ঘাটতির পর ২০১৭ সালে সুইস ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের অর্থ মজুতের পরিমাণ প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে দাড়ায় ৭ হাজার কোটি টাকা।

Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
free online course