চোখের বলিরেখা দূর হবে

চোখের মাধ্যমে সৌন্দর্যের অনেকটাই ফুটে ওঠে। চোখ সুন্দর হলে মুখের গঠনও অনেকটা বদলে যায়। কিন্তু সেই চোখের চারপাশে যদি বলিরেখা বা কুঁচকানো রেখা দেখা যায় তাহলে তা অস্বস্তিকর হয়ে ওঠে। অল্প বয়সে এটি মুখের সৌন্দর্যও নষ্ট করে। বিভিন্ন কারণে চোখের চারপাশে বলিরেখা হতে পারে।

চোখের মাধ্যমে সৌন্দর্যের অনেকটাই ফুটে ওঠে। চোখ সুন্দর হলে মুখের গঠনও অনেকটা বদলে যায়। কিন্তু সেই চোখের চারপাশে যদি বলিরেখা বা কুঁচকানো রেখা দেখা যায় তাহলে তা অস্বস্তিকর হয়ে ওঠে। অল্প বয়সে এটি মুখের সৌন্দর্যও নষ্ট করে। বিভিন্ন কারণে চোখের চারপাশে বলিরেখা হতে পারে। যেমন-

১. রোদে বেশি সময় থাকলে সূর্যের রশ্মি ত্বকের ব্যাপক ক্ষতি করে। চোখ তীব্র সূর্যের আলো সহ্য করতে পারে না। তাই রোদে বেশি সময় ব্যয় করার কারণে মুখে বলিরেখা দেখা যায়।

২. অনেকেরই ঘনঘন চোখ ঘষার অভ্যাস থাকে, এই কারণে চোখের চারপাশে বলিরেখা পড়ে যায়। চোখ ঘষার ফলে চোখের পেশির ক্ষতি হয়।

৩. যাদের ধূমপানের অভ্যাস রয়েছে তাদের মুখেও বলিরেখা দেখা যায়। ধূমপানে অনেক বিষাক্ত পদার্থ পাওয়া যায় যা ত্বকের ক্ষতি করে।

৪. অনেকের চোখ কুঁচকে হাসির অভ্যাস রয়েছে। এতে পেশির ওপর চাপ পড়ে আর সেগুলি দুর্বল হয়ে যায়। এতে চোখের চারপাশে কুঁচকেও যায়। ফলে চোখে কোঁচকানো রেখা দেখা যায়।

অনেকে চোখের চারপাশে কোঁচকানো রেখা কমাতে বিভিন্ন ধরনের প্রসাধণী ব্যবহার করেন। কিন্তু ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করে এই বলিরেখা দূর করা সম্ভব। যেমন-

আনারস : আনারসে থাকা ব্রোমেলিন এনজাইম বলিরেখা দূর করতে ভূমিকা রাখে। আনারসের রস আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটি চোখের চারপাশের কুঁচকানো রেখা কমিয়ে দেবে।

শসা : শসা ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করার পাশাপাশি বলিরেখা কমাতেও সহায়তা করে। এছাড়া শসা ডার্ক সার্কেল হ্রাস করতেও খুব কার্যকর।

অলিভ অয়েল : অলিভ অয়েল চোখের চারপাশে ম্যাসাজ করলে বলিরেখার সমস্যা কমে। এটি ব্যবহার করলে ত্বক ময়েশ্চারাইজ থাকে, আবার মুখের সূক্ষ্ম রেখাও কম হয়।

ডিম : ডিমের সাদা অংশ ত্বককে শক্ত করতে সহায়তা করে। এর সাথে এটি মুখের কুঁচকে যাওয়াও কমায়।

ক্যাস্টর অয়েল : ক্যাস্টর অয়েল দিয়ে চোখে ম্যাসাজ করলে চোখের চারপাশের বলিরেখা দূর হয়। ক্যাস্টর অয়েল দিয়ে আলতো করে মুখে ম্যাসাজ করুন। এটি ত্বকের কোলাজেন বাড়ায় এবং বলিরেখা কমায়।

দই : দইয়ের মধ্যে লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এরপরে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। দই ব্যবহার করলে মুখের মৃত ত্বক দূর হবে। এছাড়াও, চোখের চারপাশের পেশিগুলিও মজবুত হয়।

এসব ছাড়া ত্বক ও চোখের বলিরেখা কমাতে কিছু বিষয় মাথা রাখা জরুরি। যেমন-

১. রোদে বেরোনোর সময় চশমা এবং সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

২. প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ফল, শাকসবজি, ডিম, মাছ, শিম, বাদাম অন্তর্ভুক্ত করুন।

৩. ধূমপান ও অ্যালকোহল পান থেকে দূরে থাকুন।

৪. দিনে অন্তত ৭-৮ গ্লাস পানি পান করুন। সূত্র : বোল্ড স্কাই

Download Premium WordPress Themes Free
Download Best WordPress Themes Free Download
Premium WordPress Themes Download
Premium WordPress Themes Download
udemy paid course free download