জমজমের পানি বহন নিয়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল ভারত

ফ্লাইটে জমজমের পানি বহন করা যাবে না সিদ্ধান্ত জানানোর পর সমালোচনার মুখে তা প্রত্যাহার করে ক্ষমা চেয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। মঙ্গলবার সকালে নিজেদের অফিশিয়াল সাইটে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এমনটাই জানিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। হজ সেরে ফেরার পথে প্রত্যেক হাজীই গড়ে ৫ লিটার করে জল নিয়ে ফিরতে পারবেন। এয়ার ইন্ডিয়া এবং হজ কমিটির স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী হজ কমিটি অফ ইন্ডিয়া এদিন একথা জানিয়ে দেয়।

ফ্লাইটে জমজমের পানি বহন করা যাবে না সিদ্ধান্ত জানানোর পর সমালোচনার মুখে তা প্রত্যাহার করে ক্ষমা চেয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। মঙ্গলবার সকালে নিজেদের অফিশিয়াল সাইটে এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এমনটাই জানিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। হজ সেরে ফেরার পথে প্রত্যেক হাজীই গড়ে ৫ লিটার করে জল নিয়ে ফিরতে পারবেন। এয়ার ইন্ডিয়া এবং হজ কমিটির স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী হজ কমিটি অফ ইন্ডিয়া এদিন একথা জানিয়ে দেয়।

এর আগে সৌদি আরবের জেদ্দা ও ভারতের কয়েকটি শহরের মধ্যে চলাচলকারী দুটি ফ্লাইটে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জমজমের পানি বহন করা যাবে না বলে চলতি মাসের প্রথমদিকে দেওয়া এক নোটিশে জানিয়েছিল ভারতের পতাকাবাহী এয়ারলাইনটি।

মঙ্গলবার টুইটারে দেওয়া এক সংশোধনীতে এয়ারলাইনটি বলে, “এআই৯৬৬ ও এআই৯৬৪ এ জমজম ক্যান বহন না করার বিষয়ে যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল তা সংশোধন করে যাত্রীরা অনুমোদনযোগ্য লাগেজের সঙ্গে জমজম ক্যান বহন করতে পারবেন বলে জানাচ্ছি আমরা। যে অসুবিধা তৈরি হয়েছিল তার জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী।”

ঘটনা হল, জম জম মুসলিম ধর্মে পবিত্র অর্থ বহন করে। ইসলাম ধর্মে এই বিশ্বাস রয়েছে যে এই জম জম জলে যে কোন প্রকার শারীরিক অসুস্থতা দূর হয়ে যায়। তাই হজ সেরে ফেরার পথে হাজীরা এই জল নিয়ে বাড়ি ফেরেন। কিন্তু এই জল বিমানে নিয়ে আসার উপর নিসেধাজ্ঞা জারি করে এয়ার ইন্ডিয়া। তাদের নির্দেশ ছিল, হাজীরা এই জল নিয়ে বিমানে সফর করতে পারবেন না। কিন্তু তাতেই অসন্তোষ শুরু হয় হাজী মহলে।

ঘটনায় হজ যাত্রীদের একাংশ কংগ্রেস বিধায়ক আমিন প্যাটেলের দ্বারস্থ হন। তাকে এই সমস্যায় হস্তক্ষেপ করার জন্য আর্জি জানান। তাদের সমস্যার কথা শুনে কেন্দ্রীয় বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী হরদীপ পুরিকে একটি চিঠি লেখেন বিধায়ক। সেই চিঠিতে হজ যাত্রীদের সমস্যার কথা সম্পূর্ণ করে তুলে ধরেন তিনি। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্টের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, বিধায়ক ওই চিঠিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে জানিয়েছেন, “জম জম হল পবিত্র এবং মুসলিম ধর্মে ধর্মীয় অর্থ বহন করে। ইসলাম ধর্মে এই বিশ্বাস রয়েছে, এই জলে যে কোন শারীরিক অসুস্থতা দূর হয়ে যায়। তাই হাজীদের অবশ্যই এই জল নিয়ে যেতে দেওয়া উচিৎ।” এরপরই এয়ার ইন্ডিয়া এবং হজ কমিটির স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী হজ কমিটি অফ ইন্ডিয়ার সিইও এম এ খান জানিয়েছেন, হজ সেরে ফেরার পথে প্রত্যেক হাজীই গড়ে ৫ লিটার করে জল নিয়ে যেতে পারবেন।

বিমান সংখ্যা AI966 এবং AI964 এই দুটি উড়ানে এবার জম জম জল নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারবেন হজ তীর্থ যাত্রীরা। কারণ জল নিয়ে সফর না করা সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। তারা জানিয়েছে, অনুমতিযোগ্য পরিমাণে জল নিয়ে ফেরা যাবে। টুইটারে নিজেদের নয়া নির্দেশিকা জানিয়ে এয়ার ইন্ডিয়া বলেছে, “বিমান সংখ্যা AI966 এবং AI964-এ জম জম জল নিয়ে যাওয়ার যে নিষেধাজ্ঞা ছিল তা সংশোধন করে আমরা জানাচ্ছি, নির্দিষ্ট করে দেওয়া মালপত্রের পরিমাণ অনুযায়ী তারা জম জম জলের ক্যান নিয়ে যেতে পারবেন। যাত্রীদের এহেন অসুবিধের জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী।”

Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
free download udemy paid course