জাতীয় ক্রিকেটারদের ফিটনেস বাড়ানোর জোর তাগিদ পাপনের

জাতীয় লিগ দরজায় কড়া নাড়ছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ৫ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াবে দেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের সর্ববৃহৎ আসর।

জাতীয় লিগ দরজায় কড়া নাড়ছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ৫ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াবে দেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের সর্ববৃহৎ আসর।

এ আসর শুরুর আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেস লেভেল নিরুপণে এবার বিপ টেস্ট নিবে বিসিবি। এবং এই বিপ টেস্টে একটা নির্ধারিত মানদণ্ড বেঁধেও দেয়া হয়েছে। এবার বিপ টেস্টে ‘১১’ মানদণ্ড বেঁধে দেয়া হয়েছে। এবং তা নিয়েই বিপত্তি। সিনিয়র ক্রিকেটারদের আপত্তি।

মোহাম্মদ আশরাফুল, তুষার ইমরানদের মত সিনিয়র ও অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা গড়পড়তা বিপ টেস্টে ১৩ ‘র নিচে নামাতে পারছেন না। সে কারণেই তাদের কথা হুট করে ১১ মানদণ্ড নির্ধারণ করায় পড়েছেন বেকায়দায়। এত অল্প সময়ে সেই মানদণ্ড ছোঁয়া কঠিন।

তবে নাজমুল হাসান পাপন এই সিনিয়র ক্রিকেটারদের নিয়ে চিন্তিত নন। তার মাথাব্যথা জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে। আজ (শুক্রবার) মিডিয়ার সাথে আলাপে ক্যাসিনো কেলেঙ্কারির অভিযোগে অভিযুক্ত লোকমান হোসেন এবং বোর্ড শীর্ষ কর্তা মাহবুব আনামের দুদকের কাছ থেকে সম্পদের হিসেব চাওয়া সম্পর্কে কথা বলার পাশাপাশি বিপ টেস্ট নিয়েও কথা বলেন বিসিবি প্রধান।

তিনি পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, ‘এখন আমাদের মূল সমস্যা যেটি দেখছি জাতীয় দলে সেটা হচ্ছে ফিটনেস। খেলোয়াড়দের ফিটনেস খুবই খারাপ। কোচ এসে বলছে এটা কি ধরনের ফিটনেস তোমাদের খেলোয়াড়দের? এমন ফিটনেস নিয়ে তো আন্তর্জাতিক লেভেলে খেলা কঠিন। আমি দক্ষিণ আফ্রিকায় ছিলাম, সেখানে তো কখনো দেখি নি। এখন হঠাৎ করে তো আর বাড়াতে পারবো না। ১৩ তে যেতে পারছি না বা উপরে উঠতে পারছি না।’

তাই নাজমুল হাসান পাপন জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ফিটনেস লেভেল বাড়ানোর তাগিদ অনুভব করছেন। তার অনুভব, বিপ টেস্টে ৯ বা ১০ থাকতে হবে। এজন্য ক্রিকেটারদের পরিশ্রম করতে হবে।

Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
free online course