জেনে নিন চোখের নীচের কালো দাগ দূর করতে কিছু ঘরোয়া উপায়

যার চোখ সুন্দর তারা সৌন্দর্যের দিক থেকে অন্যদের তুলনায় এগিয়ে। কেননা সৌন্দর্যের বড় একটা অংশ জুড়ে আছে চোখ। আবার কারও সৌন্দর্য বর্ণনা করতে গেলে প্রথমে দৃষ্টি যায় চোখের ওপর। চোখ যেমন শরীরের সবচেয়ে সুন্দর একটি অঙ্গ, তেমনই স্পর্শকাতর। কিন্তু সেই সুন্দর চোখের নীচে যদি কালো দাগ থাকে, তাহলে তা চোখের জন্য যেমন খারাপ, তেমনই সৌন্দর্যহানীকর।

যার চোখ সুন্দর তারা সৌন্দর্যের দিক থেকে অন্যদের তুলনায় এগিয়ে।

কেননা সৌন্দর্যের বড় একটা অংশ জুড়ে আছে চোখ।

আবার কারও সৌন্দর্য বর্ণনা করতে গেলে প্রথমে দৃষ্টি যায় চোখের ওপর।

চোখ যেমন শরীরের সবচেয়ে সুন্দর একটি অঙ্গ, তেমনই স্পর্শকাতর।

কিন্তু সেই সুন্দর চোখের নীচে যদি কালো দাগ থাকে,

তাহলে তা চোখের জন্য যেমন খারাপ, তেমনই সৌন্দর্যহানীকর।

বেশির ভাগ মানুষ কর্মব্যস্ত থাকায় নিজের প্রতি যত্ন নিতে পারেন না।

অনেক সময় অতিরিক্ত কাজের চাপে ঠিক মতো ঘুমাতেও পারেন না,

তখন সারা শরীরে নেমে আসে ক্লান্তি।

এসব অনিয়ম ফুটে উঠে চোখে। তখন চোখের নিচের ত্বক কালো বর্ণ হতে থাকে।

একবার এই কালো দাগ দেখা দিলে এবং তা ঠেকাতে পদক্ষেপ না নিলে ক্রমশ বাড়তে থাকে।

তবে অনেকে চোখের নিচের কালো দাগ সরাতে স্মরণাপন্ন হন বিউটি পার্লারে।

এতে সময় ও পয়সা দুটোই ব্যয় হয়।

কিন্তু ঘরে বসে নিজেই চোখের নীচের কালো দাগ দূর করতে পারেন।

এর জন্য বেশি কিছু প্রয়োজনও হয় না।

রান্নাঘরের সামগ্রীর সাহায্যে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই দূর হবে কালো দাগ।

তবে এই সামগ্রীগুলো টেস্ট করে নিয়ে তারপর ব্যবহার করতে হবে।

এবার জেনে নিন ঘরোয়া উপায়ে কিভাবে চোখের নিচের কালো দাগ করবেন…

নারিকেল তেল-হলুদ

কাঁচা হলুদ বেটে তার সঙ্গে নারিকেল তেল আর আমন্ড তেল মেশান।

থকথকে ঘন প্যাক বানিয়ে চোখের নীচে এবং পুরো মুখে ভাল ভাবে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

এভাবে কয়েকদিন লাগাতে পারলে কালো দাগ দূর তো হবেই এবং আপনার মুখের ত্বকও উজ্জ্বল হবে।

আলু বাটা

খোসাসহ আলু বেটে চোখের নীচে লাগান। তিন-চার দিন এই প্যাকটি ব্যবহার করলে চোখের কালো দাগ দূর হবে।

কফি বিন

শপিং মলে বা নামজাদা কোনও কফিশপে কফি বিন কিনতে পাওয়া যায়।

কফি বিন কিনে এনে ব্লেন্ডারে তা গুঁড়া করে নিন।

এক চামচ কফিবিন গুঁড়ার সঙ্গে পরিমাণ মতো কোকো পাউডার ও মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন।

চোখের নিচ-সহ পুরো মুখে লাগিয়ে নিন।

শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন। মুখ ভালো করে মুছে নিয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখের চারপাশে এক পরত আমন্ড তেল লাগিয়ে নিন।

প্রতিদিন ব্যবহার করুন এই প্যাক।

টি ব্যাগ

টি ব্যাগ ব্যবহারের পর তা ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিন।

এরপর তা ফ্রিজ থেকে নিয়ে চোখ বন্ধ করে ১০ মিনিট চোখের উপর রেখে দিন।

এভাবে প্রতিদিন ব্যবহারে দূর হবে চোখের নীচের কালো দাগ।

শসা-দই

শসা কুঁচিয়ে নিয়ে তার সঙ্গে দই মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা হতে দিন।

এরপর এই প্যাক চোখের নীচে লাগিয়ে রাখুন।

শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চোখের নীচে লাগান আমন্ড কিংবা নারিকেল তেল।

সপ্তাহে দু’ থেকে তিন দিন ব্যবহার করুন এই প্যাক।

দই-মধু

দইয়ের মধ্যে থাকা হাইড্রক্সি অ্যাসিড নতুন কোষ তৈরির হার বৃদ্ধি করে।

দই, মধু আর গোলাপজলের সংমিশ্রণে প্যাক তৈরি করে তা চোখের নীচে ও মুখে লাগান দিনে দু’বার।

শুকিয়ে গেলে ঈষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এরপর মুখে লাগিয়ে নিন ময়শ্চারাইজার বা অ্যালোভেরার জেল।

ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখের চারপাশে এক পরত আমন্ড তেল লাগিয়ে নিন।

গাজর-মধু

গাজরে থাকে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ‘এ’ ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট।

যা চোখে নীচের দাগ ও বলিরেখা রুখতে সাহায্য করে।

গাজর কুরে নিয়ে অথবা হাল্কা সেদ্ধ করে তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন।

প্যাকটি ১০ মিনিট চোখের নীচে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

এর পর লাগিয়ে নিন আই ক্রিম অথবা ময়শ্চারাইজার।

উপরোক্ত উপায়গুলোর মধ্যে যে কোন একটি নিয়মিত করতে পারলে আপনার চোখের নিচের কালো দাগ দূর হবে

এবং মুখের ত্বকেরও নানা উপকার পাবেন।

Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
download udemy paid course for free