ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে লম্বা জামা পরার পরামর্শ মেয়র খোকনের

নগরবাসীর সচেতনতার মধ্য দিয়েই রাজধানীকে ডেঙ্গুমুক্ত করা সম্ভব উল্লেখ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন বলেছেন, আপনারা যারা লম্বা প্যান্ট, পায়জামা পরেন, পাজামার সঙ্গে মোজা পরলে আমরা কিন্তু নিরাপদ থাকতে পারি। বাসায় যারা থাকবেন, তাদের লম্বা জামা পরতে বলবেন। এই ছোট ছোট সচেতনতা আমাদের উপকার করবে এবং ডেঙ্গু থেকে রক্ষা করবে।

নগরবাসীর সচেতনতার মধ্য দিয়েই রাজধানীকে ডেঙ্গুমুক্ত করা সম্ভব উল্লেখ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন বলেছেন, আপনারা যারা লম্বা প্যান্ট, পায়জামা পরেন, পাজামার সঙ্গে মোজা পরলে আমরা কিন্তু নিরাপদ থাকতে পারি। বাসায় যারা থাকবেন, তাদের লম্বা জামা পরতে বলবেন। এই ছোট ছোট সচেতনতা আমাদের উপকার করবে এবং ডেঙ্গু থেকে রক্ষা করবে।

রোববার (৪ আগস্ট) দুপুরে নগর ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। কোরবানির বর্জ্য সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধের লক্ষ্যে মসজিদের খতিব ও ইমামদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং অ্যারোসেল স্প্রে বিতরণ সভার আয়োজন করে ডিএসসিসি।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নেয়া উদ্যোগ তুলে ধরে মেয়র খোকন বলেন, প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০টি বাসায় আমাদের ইনসপেকশন টিম যাচ্ছে, এডিস মশার লার্ভা নষ্ট করছে। ইতোমধ্যে ১৫ হাজার বাসা ছাড়িয়ে গেছে। কাল পরশু থেকে প্রতিদিন কমপক্ষে ৬০টি বাসা প্রতিটি ওয়ার্ডে ৩৪৮০টি বাসা ইনসপেকশন করে এডিস মশার লার্ভা নষ্ট করা হবে। আমরা আমাদের জনবল বৃদ্ধি করছি।

ডেঙ্গু মোকাবিলায় নগর কর্তৃপক্ষ তার সর্বশক্তি দিয়ে মাঠে আছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের জনগণ এক মাস আগেও সচেতন ও সতর্ক ছিল না, তবে এখন ডেঙ্গু নিয়ে সবাই মোটামুটি সচেতন। আপনাদের সচেতনতা ও আমাদের প্রচেষ্টা এই দুইয়ের সমন্বিত উদ্যোগে আমরা ডেঙ্গুকে মোকাবিলা করব।

দক্ষিণের মেয়র বলেন, সেপ্টেম্বর মাসের পহেলা সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গুকে নিয়ন্ত্রণে আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে। আপনারা আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন, ইনশাল্লাহ এই শহরে আমরা ডেঙ্গু আতঙ্ক থেকে মুক্ত থাকতে পারব। আল্লাহ ধৈর্যশীলকে পছন্দ করেন। আপনারা ধৈর্য ধরেন, ইনশাল্লাহ এই বালা-মুসিবত এই গজব থেকে আল্লাহ আমাদের মুক্ত করবে।’

কোরবানির ঈদে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের নির্দেশনা মানতে ইমামদের প্রতি আহবান জানিয়ে সাঈদ খোকন বলেন, পশু নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি দিতে হবে। কোরবানির পর বর্জ্য যথাযথ স্থানে ফেলে ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দিতে হবে। এরজন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে ব্লিচিং পাউডার যথাসময়ে পৌঁছে যাবে।

কোরবানির বর্জ্যে ডেঙ্গু যেন আবার জেঁকে বসতে না পারে সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান তিনি।

সাঈদ খোকন বলেন, কোরবানির ঈদে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার একটি বিষয় থাকে। প্রতিবছর ঈদের আগে আমরা মসজিদের ইমামদের নিয়ে বসি। তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পরিকল্পনা করা হয়।

বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় সবাইকে সচেতন করতে ইমামদের মসজিদে-মসজিদে খুতবার পর এক মিনিট বর্জ্য নিয়ে সচেতনতামূলক বয়ান দেওয়ার আহবান জানান মেয়র। যে কোনো প্রয়োজনে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের হটলাইনে (০৯৬১১০০০৯৯৯) ফোন করার পরামর্শও দেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. শরিফ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা এয়ার কমোডর মো. জাহিদ হোসেনসহ সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা ও কর্পোরেশনভুক্ত প্রতিটি ওয়ার্ডের ইমামরা উপস্থিত ছিলেন।

Premium WordPress Themes Download
Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
free download udemy paid course