প্রাকৃতিক উপাদানের মাঝে চালের গুঁড়া আদি ও অন্যতম একটি উপাদান। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টপূর্ণ চালের গুঁড়া ত্বকের ফ্রি রেডিক্যাল ড্যামেজকে প্রশমিত ও প্রতিরোধ করে ত্বককে সুরক্ষিত রাখে।

ত্বকের যত্নে চালের গুড়ার ব্যবহার জেনে নিন

ত্বকের যত্নে চালের গুড়ার ব্যবহার জেনে নিন
maxresdefault

প্রায় সকলেই কোন না কোন সময়ে ত্বকের সমস্যায় ভুগে থাকেন।

যা খুবই স্বাভাবিক একটি বিষয়। এদিকে ত্বকের সমস্যাটির মতোই স্বাভাবিক বিষয় হলো সবাই সুস্থ ও সুন্দর ত্বক পেতে চান। কাঙ্ক্ষিত ত্বক পাওয়ার জন্য ত্বকের সঠিক পরিচর্যার কোন বিকল্প নেই একদম। ত্বকের পরিচর্যার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের পণ্য ব্যবহার করা হয়। সেটা হতে পারে কেমিক্যালযুক্ত কোন পণ্য অথবা প্রাকৃতিক ও পরিচিত কোন উপাদান। সাধারণত ত্বকের পরিচর্যার জন্য প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহারের প্রতি জোর দেওয়া হয়। কারণ প্রাকৃতিক উপাদানের পুষ্টিগুণ সরাসরি ত্বককে প্রাণবন্ত করে তুলতে ও উপকার করতে কাজ করে।

প্রাকৃতিক উপাদানের মাঝে চালের গুঁড়া আদি ও অন্যতম একটি উপাদান। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টপূর্ণ চালের গুঁড়া ত্বকের ফ্রি রেডিক্যাল ড্যামেজকে প্রশমিত ও প্রতিরোধ করে ত্বককে সুরক্ষিত রাখে। শসা কিংবা অ্যালোভেরার ভিড়ে চালের গুঁড়া ব্যবহারের কথা ভুলতে বসেছি আমরা। অথচ এই উপাদানটি খুব গভীর থেকে ত্বককে পরিষ্কার করে এবং ত্বকের নানান উপকারিতায় কাজ করে।

চালের গুঁড়া ব্যবহারে কী উপকারিতা পাওয়া যাবে?

ত্বকের পরিচর্যায় চালের গুঁড়া ব্যবহারে শুধু একটি বা দুইটি নয়, বেশ কিছু উপকারিতা একসাথে পাওয়া যাবে।

১. ত্বক এক্সফলিয়েট করতে কাজ করে।

২. একনের সমস্যা প্রতিরোধ করে।

৩. ত্বক কোমল করে।

৪. প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।

৫. ত্বককে টানটান রাখতে সাহায্য করে।

৬. চোখের নিচের ডার্ক সার্কেল দূর করে।

৭. রোদেপোড়াভাব কমাতে কাজ করে।

৮. হোয়াইট হেডস ও ব্ল্যাক হেডস দূর করে।

৯. দূর করবে ত্বকের বলীরেখা।

কীভাবে ব্যবহার করতে হবে চালের গুঁড়া?

ত্বকের যত্নে চালের গুঁড়া ব্যবহারের বেশ কয়েকটি পদ্ধতি আছে। এখানে তিনটি সহজ ও প্রচলিত পদ্ধতি জানানো হলো।

চালের গুঁড়া ও হলুদ গুঁড়া

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে এই পদ্ধতিতে চালের গুঁড়া ব্যবহার করা হলে। এক টেবিল চামচ চালের গুঁড়া, এক চা চামচ লেবুর রস ও এক চিমটি হলুদ গুঁড়া একসাথে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে ত্বকে প্রলেপ মাখাতে হবে। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে।

চালের গুঁড়া ও গোলাপজল

ত্বককে টান টান রাখতে ও ত্বকের বলীরেখা দূর করতে এই পদ্ধতিটি চমৎকার কাজ করবে। এই ফেসপ্যাক তৈরিতে এক চা চামচ চালের গুঁড়া, এক চা চামচ কর্নফ্লাওয়ার, এক টেবিল চামচ গোলাপ জল ও কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন একসাথে মেশাতে হবে। এই মিশ্রণটি ত্বকে ম্যাসাজ করে সম্পূর্ণ শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এরপর কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে নিতে হবে।

চালের গুঁড়া ও দুধ

এই মিশ্রণটি মূলত রোদে পোড়াভাব দূর করতে কাজ করবে। দুই টেবিল চামচ চালের গুঁড়া ও কাঁচা দুধ, এই দুইটি উপাদান একসাথে মিশিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করে আধা ঘন্টা রেখে এরপর পানিতে ত্বক ধুয়ে ফেলতে হবে।

Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
udemy course download free