দিল্লি জ্বলছেই, সেনা নামানোর আবেদন কেজরিওয়ালের

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে চলমান সংঘর্ষে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ২৪ জনে। এছাড়া এ ঘটনায় এক শিশুসহ আরও দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। রাজধানীতে আধা সামরিক বাহিনী নামলেও স্বাভাবিক হচ্ছে না পরিস্থিতি।

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে চলমান সংঘর্ষে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ২৪ জনে। এছাড়া এ ঘটনায় এক শিশুসহ আরও দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। রাজধানীতে আধা সামরিক বাহিনী নামলেও স্বাভাবিক হচ্ছে না পরিস্থিতি।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ পুলিশ। দিল্লিতে তাই ফের সেনা নামানোর পক্ষে মত দিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে তিনি চিঠি লিখেছেন বলেও জানিয়েছেন কেজরিওয়াল।

এর আগে, মঙ্গলবারও দিল্লিতে সেনা নামানোর পক্ষে সওয়াল করেছিলেন কেজরিওয়াল। তবে কেন্দ্রের তরফে আরও পুলিশ বাহিনী নামানো হবে বলে সেই সময় আশ্বাস দেওয়া হয়। এ দিন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলিতে সবমিলিয়ে ৪৫ কোম্পানি আধাসেনা নামানো হয়।

বুধবার সকালে দিল্লিতে মৃত্যুসংখ্যা ২৪জনে পৌছেছে। তার পরই রাজধানীর পরিস্থিতি নিয়ে টুইটারে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেজরিওয়াল।

তিনি লেখেন, ‘‘রাতভর অনেকে মানুষের সঙ্গে কথা হয়েছে। পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক। সবরকম চেষ্টা সত্ত্বেও, এখনও পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি পুলিশ। মানুষের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফেরানো যায়নি। এ বার সেনা নামানো উচিত। উচিত ক্ষতিগ্রস্ত সব জায়গায় অবিলম্বে কার্ফু জারি করা। এই ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছি আমি।’’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী ও সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে গত রবিবার তেতে ওঠে উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিস্তীর্ণ অঞ্চল। তার পর থেকে গত তিন দিনে বিভিন্ন এলাকায় হিংসা ছড়িয়েছে। এলোপাথাড়ি ইটবৃষ্টির পাশাপাশি চলেছে গুলিও।

এ নিয়ে ইতোমধ্যেই অমিত শাহের সঙ্গে একদফা বৈঠক করেছেন কেজরিওয়াল। তবে বিভিন্ন মহলের অভিযোগ, হিংসা রুখতে তাঁর সরকারের তরফে এখনও পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। এমনকি শান্তির আহ্বান জানানো ছাড়া, হিংসা নিয়ে কোনও মন্তব্যও করতে দেখা যায়নি তাঁকে। তার জেরে রাজনৈতিক মহলে তো বটেই দলের অন্দরেও প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে কেজরিওয়ালকে। এ দিনও সেনা নামানোর পক্ষে সওয়াল করলেও, দিল্লি পুলিশের নিস্ক্রিয়তা নিয়ে যে ভূরি ভূরি অভিযোগ উঠে আসছে, তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি।-আনন্দবাজার

Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
download udemy paid course for free