দীর্ঘ রেঞ্জের ইলেকট্রিক গাড়ির রেকর্ড গড়লো লুসিড এয়ার, একবার চার্জে যাবে ৫১৭ মাইল

টেসলার প্রতিদ্বন্দ্বী লুসিড মটরস জানিয়েছে, তাদের তৈরি লুসিড এয়ার একবার চার্জে ৫১৭ মাইল পর্যন্ত চলতে পারে। এ যাবতকাল পর্যন্ত এটিই সবচেয়ে দীর্ঘ রেঞ্জের ইলেকট্রিক গাড়ি। খবর বিজনেস ইনসাইডারের। লুসিডের ৫১৭ মাইল রেঞ্জ গাড়িটি টেসলা এস-র ৪০২ মাইল রেঞ্জের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। টেসলা তাদের সেমির জন্য ৫০০ মাইল রেঞ্জের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে; যদিও ১৮ চাকার গাড়িটির উৎপাদন এখনও শুরু হয়নি।

টেসলার প্রতিদ্বন্দ্বী লুসিড মটরস জানিয়েছে, তাদের তৈরি লুসিড এয়ার একবার চার্জে ৫১৭ মাইল পর্যন্ত চলতে পারে।

এ যাবতকাল পর্যন্ত এটিই সবচেয়ে দীর্ঘ রেঞ্জের ইলেকট্রিক গাড়ি। খবর বিজনেস ইনসাইডারের।

লুসিডের ৫১৭ মাইল রেঞ্জ গাড়িটি টেসলা এস-র ৪০২ মাইল রেঞ্জের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

টেসলা তাদের সেমির জন্য ৫০০ মাইল রেঞ্জের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে; যদিও ১৮ চাকার গাড়িটির উৎপাদন এখনও শুরু হয়নি।

এলন মাস্কের সঙ্গে কাজ করার সময় মডেল এস-র উন্নয়নে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন লুসিডের সিইও পিটার রাওলিনসন।

ইন্টেরিয়রের বিলাসিতার দিক দিয়ে তাদের তৈরি গাড়ি টেসলার সিডানকে পেছনে ফেলবে।

তাদের গাড়ি মাত্র ২.৫ সেকেন্ডে ০ থেকে ঘণ্টায় ৬০ মাইলে অ্যাকসেলারেট করতে পারে।

তাদের গাড়ির দামও শুরু হয়েছে এক লাখ ডলারের বেশি থেকে।

তবে ব্যাটারির ক্ষমতার প্রশ্নে ক্রেতাদের কাছে রেঞ্জ খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি পয়েন্ট।

গত জুনে টেসলা যখন জানায়, তাদের মডেল এস গাড়ি একবার চার্জে ৪০২ মাইল পর্যন্ত চলেছে, তখন হৈ চৈ পড়ে যায়।

গাড়ির ওজন কমানো, অ্যারোডাইনামিক পরিবর্তন এবং রিজেনারেটিভ ব্রেকিং বাড়ানোর মাধ্যমে ৪০০ মাইলের বেঞ্চমার্ক ভাঙে কোম্পানিটি।

রাওলিনসন জুলাইয়ে বিজনেস ইনসাইডারকে বলেন, আমরা এমন একটি গাড়ি তৈরি করেছি যা বিশ্বের সবচেয়ে ভালো গাড়ি হবে।

মানুষ এটা কিনতে চাইবে।

নিজেদের অর্জনকে নিশ্চিত করতে ভেহিক্যাল ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি এফইভি নর্থ আমেরিকাকে নিয়োগ দেয় লুসিড, যাতে তারা লুসিড এয়ারের ইপিএ টেস্ট এবং রেঞ্জ নির্ধারণ করতে পারে। তবে ফেডারেল এজেন্সি ৫১৭ মাইল রেঞ্জের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।

এর আগে গত মে মাসে ইপিএ রেটিং নিয়ে বিতর্কের জন্ম দেয় এলন মাস্ক।

তার অভিযোগ সংস্থাটির রেটিংয়ে মডেল এস-র রেঞ্জ ৩৯১ মাইল হলেও, গাড়িটির আসল রেঞ্জ ৪০০ মাইলের বেশি।

ভুল টেস্টিংয়ের কারণে এমন ফলাফল এসেছে বলেও জানান তিনি। পরে জুন মাসে ৪০২ মাইলের আপডেট ইপিএ রেটিং প্রকাশ করে টেসলা।

লুসিডের অ্যারোডাইনামিকস টিমে ফর্মুলা ওয়ানের ভেটারেনসরাও রয়েছে।

তারা বলছে, এয়ারের ডিজাইন এমনভাবে করা হয়েছে, যার ফলে এটা দ্রুত চলতে পারে।

আগামী ৯ সেপ্টেম্বর গাড়ির চূড়ান্ত ভার্সন প্রকাশ করার পরিকল্পনা করছে লুসিড। আর বছরের শেষদিকে শুরু হবে উৎপাদন।

আর ২০২১ সালের শুরুর দিকে ক্রেতারা কিনতে পারবেন লুসিড এয়ার গাড়িটি।

Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
free download udemy course