ধোনি এভাবে মাঠে ঢুকতে পারেন না , বলছেন প্রাক্তন আম্পায়ার

মহেন্দ্র সিংহ ধোনির প্রকাশ্য প্রতিবাদ এবং অপ্রত্যাশিত আচরণ নিয়ে তোলপাড় চলছেই। ‘‘ধোনি এ ভাবে মাঠে ঢুকতে পারেন না। এটা পুরোপুরি নিষিদ্ধ। ৫০ শতাংশ জরিমানা লঘু শাস্তি,’’ বলছেন প্রাক্তন আম্পায়ার কে হরিহরণ। পাশাপাশি বৃহস্পতিবারের চেন্নাই সুপার কিংস বনাম রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের দুই আম্পায়ার সুন্দরম রবি এবং উল্লাস গান্ধের আম্পায়ারিং নিয়েও আলোচনা তুঙ্গে। আইপিএলের আম্পায়ারিংয়ের মান নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

মহেন্দ্র সিংহ ধোনির প্রকাশ্য প্রতিবাদ এবং অপ্রত্যাশিত আচরণ নিয়ে তোলপাড় চলছেই। ‘‘ধোনি এ ভাবে মাঠে ঢুকতে পারেন না। এটা পুরোপুরি নিষিদ্ধ। ৫০ শতাংশ জরিমানা লঘু শাস্তি,’’ বলছেন প্রাক্তন আম্পায়ার কে হরিহরণ। পাশাপাশি বৃহস্পতিবারের চেন্নাই সুপার কিংস বনাম রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের দুই আম্পায়ার সুন্দরম রবি এবং উল্লাস গান্ধের আম্পায়ারিং নিয়েও আলোচনা তুঙ্গে। আইপিএলের আম্পায়ারিংয়ের মান নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

হরিহরণ মনে করছেন, এ ভাবে তারকা ক্রিকেটারেরা চাপ সৃষ্টি করতে পারেন। তবে আম্পায়ারের উপর নির্ভর করবে এই পরিস্থিতিতে তিনি কী করবেন। ‘‘অবশ্যই তারকা ক্রিকেটার আম্পায়ারের উপর চাপ দিতে চাইবেন। সেই চাপ আম্পায়ার কী ভাবে সামলাবেন সেটা তাঁর ব্যাপার। তার ব্যক্তিত্বের উপরও অনেক কিছু নির্ভর করছে।’’ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলের অন্যতম কর্তা জহির খান আবার মনে করেন আম্পায়ারদের উপর এ ভাবে চাপ সৃষ্টি করলে লাভ হবে না। ‘‘অনেক কিছুই এখন উন্নত হয়েছে। আরও উন্নতির জায়গাও রয়েছে সেটা ঠিক। আম্পায়ারিংয়ের মান নিয়ে বলতে পারি, কাজটা কিন্তু সোজা নয়। আম্পায়ারদের উপরে যদি আরও চাপ দেওয়া হয়, কাজটা আরও কঠিন হয়ে উঠবে,’’ বলেন জহির। তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘‘যতক্ষণ আম্পায়ারেরা সঠিক সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন ততক্ষণ কোনও সমস্যা হচ্ছে না। এটা ঠিক যে এ বার কয়েকটা ঘটনা এমন হয়েছে যেখানে কিছু জিনিস হাতের বাইরে চলে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। তবে যতক্ষণ গোটা ম্যাচে আম্পায়ারিং ধারাবাহিক থাকবে সব কিছু ঠিক থাকা উচিত।’’

আইপিএলে এ ভাবে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তারকা ক্রিকেটারের প্রতিবাদের ঘটনা গত তিন সপ্তাহে দ্বিতীয় বার ঘটল। এর আগে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর অধিনায়ক বিরাট কোহলিও আইসিসি এলিট প্যানেলের আম্পায়ার রবির সমালোচনা করেছিলেন। সেই ম্যাচে লাসিথ মালিঙ্গার একটি নো বল ধরতে না পারায়। ফলে ম্যাচে হারতে হয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে। ‘‘আমরা ক্লাব ক্রিকেট খেলছি না। আম্পায়ারদের আরও সতর্ক হওয়া উচিত,’’ বলেছিলেন কোহলি। সেই ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছিলেন বিপক্ষ দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মাও।

হরিহরণ মনে করেন চাপের মুখেও আম্পায়ারদের নিজের সিদ্ধান্তে স্থির থাকতে হবে। ‘‘যে কোনও আম্পায়ারই হোক না কেন, নিজের সিদ্ধান্তে স্থির থাকার সাহস থাকা উচিত,’’ বলেন তিনি। এর পরে বৃহস্পতিবারের সিএসকে বনাম রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘পরিষ্কার একটা কথা বলতে চাই। কোমরের উপরে ফুল টস বল দেওয়া হচ্ছে কি না সেটা ওই ম্যাচের স্কোয়ার লেগ আম্পায়ার ব্রুস অক্সেনফোর্ডের দেখার কথা। আম্পায়ার গান্ধের নো বলের ইশারা করার কথা নয়। উনি ভুল করেছেন।’’ এর পরে তিনি যোগ করেন, ‘‘এ বার ধারাভাষ্যকার এবং বিশেষজ্ঞদের কথার পরিপ্রেক্ষিতে বলি, যদি ব্যাটসম্যান আউট না হয়, তা হলে কোনও আম্পায়ারই বলটা বৈধ কি না সেটা যাচাই করতে পারেন না। তাই ওই বলটা বৈধ কি না সেটা টিভি আম্পায়ারের কাছে যাচাই করার জন্য পাঠাতে পারতেন না আম্পায়ারেরা।’’

Download Best WordPress Themes Free Download
Download Premium WordPress Themes Free
Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
free download udemy course