পরীক্ষায় ফেল : ভিকারুননিসার ছাত্রীর আত্মহত্যা

অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় ফেল করায় সারা আক্তার স্বর্ণা নামে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার ভোরে নিজ বাসায় একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় ফেল করায় সারা আক্তার স্বর্ণা নামে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার ভোরে নিজ বাসায় একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

পরিবারের সদস্যরা জানান, স্বর্ণা ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিল। সিদ্ধেশ্বরী খন্দকার গলিতে ভাড়া বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকতো। গতকাল সোমবার তার কলেজের অর্ধবার্ষিক পরীক্ষার প্রকাশ ফল করা হয়। সে জীববিজ্ঞান বিষয়ে ফেল করে। পরদিন মঙ্গলবার ভোরে স্বর্ণা তার রুমের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে কাপড় বেঁধে গলায় ফাঁস দেয়।

তারা জানান, স্বর্ণাকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলতে দেখে তার রুমের দরজা ভেঙে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা স্বর্ণাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্বর্ণ পরিবারের বড় সন্তান। তার ছোট একটি বোন রয়েছে। সেও এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে। তারা বাবা ব্যবসায়ী ও মা গৃহিণী। তার অকাল মৃত্যুতে পরিবারে সবার মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্বর্ণাকে নিজ জেলায় দাফন করতে মাদারীপুর নিয়ে যাওয়া হয় বলেও জানানো হয়।

কলেজ শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ভিকারুননিসার বেইলি রোড শাখায় স্বর্ণা স্কুল পর্যায়ে ভর্তি হয়। বিগত সময়ে প্রতিটি পরীক্ষায় সে ভালো ফল অর্জন করেছিল। কিন্তু একাদশ শ্রেণির অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় সে জীববিজ্ঞানে ফেল করে। স্বর্ণা খুব শান্ত মেজাজের মেয়ে ছিল। তার এমন মৃত্যুতে কলেজের সহপাঠী ও শিক্ষকদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পাশাপাশি তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন তারা।

এ বিষয়ে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নি বডির সদস্য ইউনূস আলী আকন্দ জাগো নিউজকে বলেন, অরিত্রি অধিকারীর পর আবারও স্বর্ণা নামে একাদশ শ্রেণির এক মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এ ঘটনার জন্য আমরা মর্মাহত। কেন এই ছাত্রী আত্মহত্যা করলো তা আমরা খতিয়ে দেখব?

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার বলেন, আমরা স্বর্ণার অকাল মৃত্যুতে মর্মাহত। তার আত্মহত্যার মাগফেরাত কামনা করে কলেজের পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সে ব্যাপারে লক্ষ্য রাখব।

এর আগে গত বছরের ৩ ডিসেম্বর নিজের সামনে বাবাকে অপমান সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়েছিল রাজধানীর বেইলি রোডে অবস্থিত ভিকারুননিসা স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি অধিকারী।

Premium WordPress Themes Download
Download Premium WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
udemy course download free