পাকিস্তান ছাড়া ১২০ দেশে দেখা যাবে আইপিএল

ভারতের সংবাদ মাধ্যম রিপাবলিক ওয়াল্ড বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছে, বিশ্বের ১২০ দেশের সঙ্গে টুর্নামেন্টটির লাইভ স্ট্রিমিংয়ের ব্যবস্থা করলেও পাকিস্তানের কোনও সম্প্রচার মাধ্যমের সঙ্গে চুক্তি করেনি স্টার স্পোর্টস। ফলে পাকিস্তানে এ বছরও সরাসরি আইপিএল দেখা যাবে না।

আইপিলের ১৩তম আসর বসছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। করোনার কারণে ভারতে আয়োজন সম্ভব হচ্ছে না আইপিএল।

আবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে আসর বসলেও থাকবে না দর্শক। এবারের আইপিএল তাই জমবে টিভির পর্দায়।

আয়োজনটি বিশ্বের ১২০ দেশে সরাসরি দেখা যাবে। কিন্তু সরাসরি দেখতে পাবেন না পাকিস্তানের ভক্তরা।

ভারতের সংবাদ মাধ্যম রিপাবলিক ওয়াল্ড বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছে, বিশ্বের ১২০ দেশের সঙ্গে টুর্নামেন্টটির লাইভ স্ট্রিমিংয়ের ব্যবস্থা করলেও পাকিস্তানের কোনও সম্প্রচার মাধ্যমের সঙ্গে চুক্তি করেনি স্টার স্পোর্টস। ফলে পাকিস্তানে এ বছরও সরাসরি আইপিএল দেখা যাবে না।

করোনা মহামারীতে মার্চ থেকেই বন্ধ ক্রিকেট। ইংল্যান্ড অবশ্য তিনটি সিরিজ খেলেছে। মাঠে গড়িয়েছে সিপিএল।

কিন্তু সিপিএলের তেমন দর্শক জনপ্রিয়তা নেই। অনেকে সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটার মনে করেন, বিশ্বকাপের পরে সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেট আয়োজন হলো আইপিএল।

ফলে আইপিএল দিয়ে ক্রিকেটে ফিরতে যাচ্ছে উচ্ছ্বাস। স্টার স্পোর্টসও বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তে পৌঁছে দিতে চাইছে আইপিএল।

গত ছয় মাসের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চাইছে। কিন্তু সেটা পাকিস্তানে আইপিএল দেখানো ছাড়াই।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের মতে, সব দেশে টেলিভিশন সম্প্রচার সম্ভব না হলেও অ্যাপের মাধ্যমে লাইভ স্ট্রিম করা যাবে।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, আফ্রিকা, এমনকী কানাডা, আমেরিকা এবং ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে এই টুর্নামেন্ট দেখানো হবে।

এ বছর ভারতে আইপিএল দেখা যাবে স্টার স্পোর্টসের একাধিক চ্যানেলে।

মোট সাতটি ভাষায় শোনা যাবে ধারাভাষ্য। অন্যান্য দেশে স্কাই স্পোর্টস, ফক্স স্পোর্টসসহ একাধিক চ্যানেলের সঙ্গে চুক্তি করেছে স্টার।

Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
online free course