ফেসবুককে বিক্রির যেসব লোভনীয় প্রস্তাব এড়ান জাকারবার্গ

পনেরো পেরিয়ে ষোলো বছরে পা রেখেছে ফেসবুক। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এটি যার গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ২৪০ কোটি। তবে এই অবস্থায় আসতে কম কাঠখড় পোহাতে হয়নি ফেসবুককে।পনেরো বছরের দীর্ঘ যাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ সব সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে মার্ক জাকারবার্গের। একসময় তার কাছে লোভনীয় সব অফার আসে ফেসবুক বিক্রি করে দেয়ার জন্য। কিন্তু দূরদর্শী হওয়ার কারণে তিনি সেটা করেননি।

পনেরো পেরিয়ে ষোলো বছরে পা রেখেছে ফেসবুক। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এটি যার গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ২৪০ কোটি। তবে এই অবস্থায় আসতে কম কাঠখড় পোহাতে হয়নি ফেসবুককে।পনেরো বছরের দীর্ঘ যাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ সব সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে মার্ক জাকারবার্গের। একসময় তার কাছে লোভনীয় সব অফার আসে ফেসবুক বিক্রি করে দেয়ার জন্য। কিন্তু দূরদর্শী হওয়ার কারণে তিনি সেটা করেননি।

ডেভিড কার্কপ্যাট্রিক তার ‘দ্য ফেসবুক ইফেক্ট’ বইটিতে ফেসবুক সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন। ওই বইটিতেই জাকারবার্গের দূরদর্শিতার বিষয়টি উঠে আসে।শুরুর দিক থেকে ফেসবুক বেশ জনপ্রিয় এবং অন্যান্য কোম্পানির লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয় বলে ডেভিড কার্কপ্যাট্রিক তার বইয়ে উল্লেখ করেন। ফলে তারা ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গকে বিভিন্ন অংকের টাকার বিনিময়ে প্রতিষ্ঠানটিকে বিক্রি করে দিতে প্রলোভন দেখান। অবশ্য জাকারবার্গ বারবারই সফলতার সঙ্গে এসব প্রলোভন প্রত্যাখ্যান করেছেন।অনেক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন সময় ফেসবুককে কিনতে আগ্রহী ছিল। এরকম কয়েকটি প্রতিষ্ঠান হলো-

  • শুরুর দিকে, ২০০৪ সালে ফেসবুক যখন ‘দ্য ফেসবুক ডট কম’ নামে পরিচিত ছিল তখনও এটি বেশ জনপ্রিয় ছিল। ফলে তখনই এটা কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করে নিউইয়র্কের একটি প্রতিষ্ঠান। চালুর অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই ফেসবুককে কেনার জন্য প্রতিষ্ঠানটি ১০ মিলিয়ন ডলার প্রস্তাব করে। এসময় ফেসবুকের বয়স ছিল মাত্র ৪ মাস।
  • ফ্রেন্ডস্টার নামক প্রতিষ্ঠান ফেসবুককে কেনার চেষ্টা করেছিল। তারা বিভিন্ন প্রস্তাবও দিয়েছিল। তবে সেগুলোতে কাজ হয়নি।
  • ২০০৪ সালের গ্রীষ্মে ফেসবুককে কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করে গুগল। এসময় গুগলের বেশ কয়েকজন এক্সিকিউটিভ ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যায়। তবে শেষ পর্যন্ত সে আলোচনাও ফলপ্রসূ হয়নি।
  • ২০০৫ সালের মার্চে ভিয়াকম নামের একটি প্রতিষ্ঠান ফেসবুককে কিনতে মরিয়া হয়ে ওঠে। এসময় তারা ফেসবুককে ৭৫ মিলিয়ন ডলার প্রস্তাব করে।
  • ফেসবুককে কেনার চেষ্টা থেকে বাদ যায়নি ইয়াহু-ও। ২০০৬ সালে তারা ফেসবুককে কেনার জন্য বেশ আগ্রহী হয়ে ওঠে। তখন ইয়াহু ১ বিলিয়ন ডলারের একটি প্রস্তাব দেয়। তবে ফেসবুক তাতে সাড়া দেয়নি। পরবর্তীতে আবারও তারা ফেসবুককে কেনার জন্য ১ বিলিয়ন ডলারের বেশি অংকের অর্থ প্রস্তাব দেয়। ফেসবুক সেই প্রস্তাবেও সাড়া দেয়নি।

এগুলো ছাড়াও মাইস্পেস, এনবিএল, এওএল, মাইক্রোসফট ইত্যাদি প্রতিষ্ঠান ফেসবুককে কিনতে বিভিন্ন সময় প্রস্তাব দেয়। কিন্তু জাকারবার্গ এসব প্রস্তাব সফলতার সঙ্গে এড়িয়ে যেতে সক্ষম হন।

Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
online free course