বল টেম্পারিং প্রশ্নে যা বললেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির ঘটনায় এক বছরের সাজা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরে এসেছেন ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে রানের ফোয়ারা ছুটালেও বল টেম্পারিং কাণ্ডের সেই অভিশাপ এখনও পেছন ছাড়ছে না তাদের। এবার আবারও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ উঠলো। 

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির ঘটনায় এক বছরের সাজা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরে এসেছেন ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে রানের ফোয়ারা ছুটালেও বল টেম্পারিং কাণ্ডের সেই অভিশাপ এখনও পেছন ছাড়ছে না তাদের। এবার আবারও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ উঠলো।

এবার অভিযোগের তীর অ্যাডাম জাম্পার বিরুদ্ধে। টুইটারে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, রবিবার ভারতের বিপক্ষে বল করার এক পর্যায়ে বারবার পকেটে হাত ঢুকাচ্ছেন এবং বলের গায়ে কিছু একটা ঘষছেন এই লেগ স্পিনার। এ নিয়ে ফের শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা।

তবে ম্যাচ শেষে অজি অধিনায়ক ফিঞ্চ জানিয়ে দেন, কোনো টেম্পারিং নয়, ক্যামেরায় ধরা পড়া ওই জিনিসটি ছিল ‘হ্যান্ড ওয়ারমার্স’ যা সাধারণত হাতকে গরম রাখতে সাহায্য করে। জাম্পা এমন উপকরণ আগেও বিগ ব্যাশে ব্যবহার করেছেন।

ইংল্যান্ডে স্পিনারদের নাকি এমন হ্যান্ড ওয়ারমার্স প্রায়শই ব্যবহার করতে দেখা যায়। যেখানে এ দেশে গ্রীষ্মের তাপমাত্রা সাধারণত অন্যান্য ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলির তুলনায় কম থাকে।

ম্যাচ শেষে ফিঞ্চ বলেন, ‘আমি সেই ছবিটি দেখিনি, তবে আমি জানি তার পকেটে হ্যান্ড ওয়ারমার্স ছিল। প্রতিটি ম্যাচেই সে এটি ব্যবহার করে। আমি সত্যিই ছবিটি দেখিনি, সুতরাং এটা নিয়ে বেশি কিছু বলতে পারবো না। তবে তার কাছে এটা প্রতিটি ম্যাচেই থাকে।’

বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ উঠলেও আইসিসি অবশ্য জাম্পাকে নিয়ে কোনো তদন্ত করেনি। এমনকি মাঠের এমন বিষয়ে আম্পায়াররা কোনো প্রশ্ন তোলেননি।

Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
download udemy paid course for free