বাংলাদেশের দিকে ‘আসছে’ তীব্র ঘূর্ণিঝড় ইয়াস

যদিও বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর এখনো এই ঘূর্ণিঝড়ের বিষয়ে কিছু জানায়নি। তবে উপগ্রহ ছবি পর্যবেক্ষণ করে ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ নাথ। শনিবার (১৫ মে) ফেসবুকে তিনি এই কথা জানান।

আরব সাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় তাউকত মুম্বাইয়ে আঘাত হানার পরই আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপের ঠিক উপরে সৃষ্টি হতে যাচ্ছে আরও একটি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। যার গতিপথ হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারতের উপকূলের দিকে।

ওমানের প্রস্তাবিত ‘ইয়াস’ নাম পাবে নতুন রূপ পেতে যাওয়া বঙ্গোপসাগরের ঘূর্ণিঝড়টি।

যদিও বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর এখনো এই ঘূর্ণিঝড়ের বিষয়ে কিছু জানায়নি। তবে উপগ্রহ ছবি পর্যবেক্ষণ করে ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ নাথ। শনিবার (১৫ মে) ফেসবুকে তিনি এই কথা জানান।

এর আগে, ঘূর্ণিঝড় আম্পান ও সবশেষ মুম্বাইয়ে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় তাউকতের বিষয়েও আগাম পূর্ভাভাস দিয়েছিলেন তিনি।

ড. বিশ্বজিৎ নাথ জানান, আগামী ২৪ মে ঘূর্ণিঝড়টি রূপ পেতে পারে। সেদিন থেকে শুরু হতে পারে ঘূর্ণিঝড়টির উপকূলমুখী যাত্রা। তারপর ২৮ থেকে ৩০ মে’র মধ্যে আঘাত হানতে পারে বাংলাদেশ ও ভারত উপকূলে।

উপকূলে আঘাতের সময় ঘূর্ণিঝড়টির গতি ঘণ্টায় ১৪৫ থেকে ১৭৫ কিলোমিটার হতে পারে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করে সতর্ক হতে বলেন এই দুর্যোগ গবেষক।

Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Nulled WordPress Themes
udemy paid course free download