বাড়ল বিদ্যুৎ বিল দেয়ার সময়

এছাড়া, ত্রুটিপূর্ণ বিদ্যুৎ বিল নিয়ে প্রচুর অভিযোগের প্রেক্ষাপটে বিল সংশোধনে ছয়টি পদক্ষেপের কথা জানিয়েছে সরকার। সোমবার (৩০ জুন) সংসদে বকেয়া ও ত্রুটিপূর্ণ বিদ্যুৎ বিল নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ পদক্ষেপগুলো বিস্তারিত জানিয়েছেন।

করোনার মহামারির কারণে তিন মাস বিলম্ব মাশুল ছাড়া বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার সুবিধা দেয়া হয়েছিল।

তবে তিন মাসের ভূতুড়ে বিল নিয়ে বিপদে আছেন গ্রাহকরা।

তার উপরে হঠাৎ করেই তিন মাসের বিল জুনের মধ্যেই দেয়ার কথা বলা হয়।

এবার ত্রুটিপূর্ণ বিল সংশোধনের জন্য ১০ দিনের সময় দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ,

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তার মানে গ্রাহকরা বিল পরিশোধে আরো অন্তত ১০ দিন বাড়তি সময় পাচ্ছেন।

এছাড়া, ত্রুটিপূর্ণ বিদ্যুৎ বিল নিয়ে প্রচুর অভিযোগের প্রেক্ষাপটে বিল সংশোধনে ছয়টি পদক্ষেপের কথা জানিয়েছে সরকার।

সোমবার (৩০ জুন) সংসদে বকেয়া ও ত্রুটিপূর্ণ বিদ্যুৎ বিল নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ পদক্ষেপগুলো বিস্তারিত জানিয়েছেন।

সংশোধনে ছয়টি পদক্ষেপের মধ্যে যা থাকছে

* কয়েক মাসের ইউনিট একত্র করে একসঙ্গে অধিক ইউনিটের বিল না করা।

* বকেয়া মাসগুলোর আলাদা বিদ্যুৎ বিল তৈরি করা। (দরকারে আগের মাসের বিল থেকে ধারণা নেয়া যাবে)

* একসঙ্গে অধিক ইউনিটের বিল করে উচ্চ ট্যারিফ চার্জ না করা।

* ত্রুটিপূর্ণ বা অতিরিক্ত বিল দ্রুত সংশোধনের ব্যবস্থা করা।

* মে ২০২০ মাসের বিদ্যুৎ বিল মিটার দেখে প্রস্তুত করা।

* মোবাইল ফোন ভিত্তিক অর্থ লেনদেনের মাধ্যম ও অনলাইনে ঘরে বসে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের সুযোগ দেয়া।

এর আগে, মার্চ-মে মাস পর্যন্ত তিন মাসের বিলম্ব মাসুল ছাড়া বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার সুবিধা দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র : বিবিসি

Download WordPress Themes Free
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
udemy course download free