বাদামের নানা গুণ

প্রাচীন ভারতীয় আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে ওষুধ তৈরির অন্যতম উপাদান ছিল বাদাম। সে সময় ত্বক সতেজ রাখতে নানা ধরনের বাদাম বেটে শরীরে তার প্রলেপ দেয়া হতো। এছাড়া চুলের যত্নে ব্যবহার করা হতো বাদামের তেল। এর বাইরে খাবার হিসেবেও বাদাম বেশ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ। চলুন, এবার বাদামের কিছু গুণাগুণ সম্বন্ধে জানা যাক- 

প্রাচীন ভারতীয় আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে ওষুধ তৈরির অন্যতম উপাদান ছিল বাদাম। সে সময় ত্বক সতেজ রাখতে নানা ধরনের বাদাম বেটে শরীরে তার প্রলেপ দেয়া হতো। এছাড়া চুলের যত্নে ব্যবহার করা হতো বাদামের তেল। এর বাইরে খাবার হিসেবেও বাদাম বেশ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ। চলুন, এবার বাদামের কিছু গুণাগুণ সম্বন্ধে জানা যাক- 

ক্লান্তি দূর করে
বাদাম শক্তির ভালো উৎস। বাদাম খাওয়ার ফলে শরীরে এনার্জি দেয়। নিয়মিত বাদাম খেলে শরীরের ক্লান্তিও অনেকাংশে দূর হয়।

মস্তিষ্কের শক্তি বাড়ায়
কাজু বাদামে এক প্রকার তেল থাকে, যা ভিটামিন বি সমৃদ্ধ। এ কারণে এটি একটি শক্তিশালী খাদ্য হিসেবে পরিচিত। এছাড়াও বাদামে রয়েছে ভিটামিন বি, যা মেমরি শক্তি বৃদ্ধি করে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ
বাদামে পটাসিয়ামের পরিমাণ উচ্চ মাত্রায় থাকে এবং সোডিয়ামের পরিমাণ কম থাকে। যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। সোডিয়ামের মাত্রা বেশি হলে দেহে রক্ত বৃদ্ধি পায়, তখন রক্তচাপ বেড়ে যায়।

কোলেস্টেরল কমায়
নিয়মিত বাদাম খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। বাদাম উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে দ্রুত হজমের শক্তি বাড়ায়। তাই কোলেস্টেরলের সমস্যায় যারা ভুগছেন তারা নিয়মিত বাদাম খেতে পারেন।

তবে যেকোনো বাদামই পরিমাণের বেশি না খাওয়া ভালো। কারণ, বাদামে আছে প্রচুর ক্যালরি। তাই বেশি বাদাম খেলে ওজন বেড়ে হিতে বিপরীত হতে পারে।

Download Nulled WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
free online course