বিপিএলের সেরা একাদশ

দলের নেতৃত্বে থাকছেন যথারীতি মাশরাফি বিন মুর্তজা। ইনিংসের গোড়াপত্তন করবেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের তামিম ইকবাল ও ঢাকা ডায়নামাইটসের রনি তালুকদার। ফাইনালে তো বটেই গোটা টুর্নামেন্টেই ব্যাট হাতে ছড়ি ঘুরিয়েছেন তারা। একাদশের ওপেনার হিসেবে দুজনই আদর্শ বাছাই।

প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনাল দিয়ে গেল শুক্রবার পর্দা নেমেছে বিপিএল ষষ্ঠ আসরের। ব্যাট-বল হাতে দ্যুতি ছড়িয়েছেন অনেকেই। সেরাদের নিয়ে একাদশ নির্বাচন করেছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

দলের নেতৃত্বে থাকছেন যথারীতি মাশরাফি বিন মুর্তজা। ইনিংসের গোড়াপত্তন করবেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের তামিম ইকবাল ও ঢাকা ডায়নামাইটসের রনি তালুকদার। ফাইনালে তো বটেই গোটা টুর্নামেন্টেই ব্যাট হাতে ছড়ি ঘুরিয়েছেন তারা। একাদশের ওপেনার হিসেবে দুজনই আদর্শ বাছাই।

ওয়ানডাউনে ঠাঁয় পেয়েছেন রংপুর রাইডার্সের রাইলি রুশো। দলকে ফাইনালে তুলতে না পারলেও আসরজুড়ে রানের ফোয়ারা ছুটিয়েছেন তিনি। এবারের বিপিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এ প্রোটিয়া।

উইকেটরক্ষক হিসেবে রয়েছেন চিটাগাং ভাইকিংসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। এবারের আসরে কিপিং করেননি তিনি। তবে সেই অভ্যাস রয়েছে। ব্যাট হাতে ফর্মের তুঙ্গে ছিলেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল। ব্যাটিং লাইনআপে গভীরতা বাড়াতেই তাকে উইকেটের পেছন সামলানোর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

মিডলঅর্ডারে স্থান পেয়েছেন ঢাকা অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। মুশফিকের পর ব্যাটিংয়ে নামবেন তিনি। পাশাপাশি স্পিন আক্রমণে নেতৃত্ব দেবেন। এবার দুই বিভাগেই সমান কার্যকরী ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। দলকে ফাইনালে তুলতে রেখেছিলেন অগ্রণী ভূমিকা। তার পরে রানের গতি বাড়াতে নামবেন সিলেট সিক্সার্সের নিকোলাস পুরান। সদ্য সমাপ্ত প্রতিযোগিতায় ব্যাটিংয়ে ত্রাস ছড়িয়েছেন তিনি। দল আশানুরূপ সাফল্য না পেলেও স্বমহিমায় উজ্জ্বল ছিলেন ক্যারিবিয়ান হিটার।

একাদশে জায়গা পেয়েছেন আরও দুই অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল ও শহীদ আফ্রিদি। ঢাকার হয়ে ব্যাট-বল হাতে আগুন ঝরিয়েছেন রাসেল। আদর্শ ফিনিশার হিসেবেও নিজেকে প্রমাণ করেছেন। সঙ্গত কারণে দলের সেই ভূমিকায় তিনি থাকছেন। নিজের সেরা সময়টা পেছনে ফেলে এসেছেন আফ্রিদি। তবে কুমিল্লার শিরোপা জয়ে বড় অবদান আছে তার। ব্যাটিংয়ে সেভাবে ঝলক দেখাতে না পারলেও বল হাতে দারুণ সফল ছিলেন বুমবুমখ্যাত ক্রিকেটার।

পেস আক্রমণ দাগানোর দায়িত্বে বর্তেছে তিন বোলারের ওপর। মাশরাফির সঙ্গে থাকছেন রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ। রংপুরের হয়ে বল হাতে দারুণ সফল ছিলেন ম্যাশ। ঢাকাকে ফাইনালে তুলতে অসামান্য ভূমিকা রাখেন রুবেল। সিলেট খুব বেশিদূর যেতে না পারলেও বল হাতে সফল ছিলেন তাসকিন।

বিপিএল ছয়ের সেরা একাদশ: তামিম ইকবাল, রনি তালুকদার, রাইলি রুশো, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান, নিকোলাস পুরান, আন্দ্রে রাসেল, শহীদ আফ্রিদি, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ।

Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
download udemy paid course for free