বিশ্বকাপে তামিমের সঙ্গী কে?

তামিম ইকবাল যে বিশ্বকাপে খেলছেন সেটা অন্তত শতভাগ নিশ্চিত। যদি না কোনও অঘটন ঘটে। বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন সবারই থাকে। দেশের জার্সিতে দেশের জন্য লড়াই করার সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম তো বিশ্বকাপের এই বিশ্বমঞ্চ। কতসব দিক বিবেচনায় এনে গঠন করা হয় দল। সেই দলে না থাকার ব্যথা তো সেই বোঝে যে বাদ পড়ে যায় শেষ পর্যন্ত।

তামিম ইকবাল যে বিশ্বকাপে খেলছেন সেটা অন্তত শতভাগ নিশ্চিত। যদি না কোনও অঘটন ঘটে। বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন সবারই থাকে। দেশের জার্সিতে দেশের জন্য লড়াই করার সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম তো বিশ্বকাপের এই বিশ্বমঞ্চ। কতসব দিক বিবেচনায় এনে গঠন করা হয় দল। সেই দলে না থাকার ব্যথা তো সেই বোঝে যে বাদ পড়ে যায় শেষ পর্যন্ত।

বাদ পড়ার ঘোষণা শোনা পর্যন্ত আর গেল কই। জাতীয় দলের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েসকে তো দল ঘোষণার অনেক আগেই বাদ পড়ার তালিকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের অনানুষ্ঠানিক দল ঘোষণার মধ্য দিয়েই বিশ্বকাপে খেলার আশা একরকম ছেড়েই দিয়েছেন ইমরুল কায়েস।

নাজমুল হাসান এও বলেছিলেন, দলে খুব একটা চমক বা পরিবর্তন থাকছে না। গত একবছর যারা নিয়মিত খেলছেন তারাই জায়গা করে নিবেন বিশ্বকাপের দলে।

এর মানে তামিমের সঙ্গে উদ্বোধনীর তালিকায় আছেন লিটন কুমার দাস আর সৌম্য সরকার। তাহলে তো ইমরুল কায়েসও অনেকগুলা ম্যাচে খেলেছেন গত এক বছরে।

ইমরুল যদি বাদ পড়েই যান শেষ পর্যন্ত তাহলে এই দুইজনের মধ্যে যে কাউকে দেখা যাবে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে তামিমের সঙ্গে ওপেনিং করতে।

ইমরুল কেন থাকবে না বিশ্বকাপে? এই প্রশ্নের যুক্তি-তর্ক থেমে নেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।

চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভক্তরাও। কেননা, বিশ্বকাপ তো আর দুই বা তিন দলের সিরিজ না যে এই সিরিজে খারাপ হইছে তো পরের সিরিজে অন্য কাউকে দলে নেয়া হবে।

দেখে নেয়া যাক এই তিনজনের সবশেষ ৫টি একদিনের ম্যাচের ইনিংসগুলো-

ইমরুল কায়েস

গত বছরের অক্টোবরে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজে দুটি শত রানের ইনিংস (১৪৪ ও ১১৫) সহ আছে ৯০ রানের একটি ইনিংস। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচে ৪ আর শূন্য রানের বেশি করতে না পারায় বাদ পড়তে হয়েছিল সিরিজের শেষ ম্যাচটিতে।

এছাড়াও বলতে গেলে গত বছর আরব আমিরাতের মাটিতে অনুষ্ঠিতব্য এশিয়া কাপের দলে হঠাৎ ডাক পেয়েও অর্ধশতকের ইনিংস খেলে প্রমাণ করেছিলেন নিজেকে।

লিটন কুমার দাস
দীর্ঘ সময় ধরেই তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেনিং করে আসছেন লিটন কুমার দাস। গত এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে দুর্দান্ত শতক হাঁকানোর পর যেন চুপসে গেছেন এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান। সবশেষ ৫টি একদিনের ম্যাচের ইনিংস দেখলে হতাশ হওয়া ছাড়া আর কিছুই নেই।

ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে ৮ আর ২৩ রান। এরপর নিউজিল্যান্ড সফরে তিন ম্যাচে ১,১,১ রান।

সৌম্য সরকার
ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে তামিম ইকবালের নিয়মিত উদ্বোধনী সঙ্গী হয়ে ওঠা সৌম্য সরকার যেন হঠাৎ করেই খেই হারিয়ে ফেলেন। নিজের দিনে যেকোনও দলকে একাই শাসন করার ক্ষমতা রাখা সৌম্য শেষ পাঁচ ইনিংসে ৬ আর ৮০ রানের ইনিংস খেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। এছাড়া নিউজিল্যান্ড সফরে করেছেন ৩০, ২২ আর শূন্য রান।
বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশের দল ঘোষণার সম্ভাব্য তারিখ আগামী ১৮ এপ্রিল।

Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
online free course