বিশ্বের কাছে ধর্ষণের রাজধানী ভারত: রাহুল গান্ধী

জিনিউজ’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধর্ষণ মামলার শুনানিতে অংশ নিতে যাওয়ার পথে অভিযুক্তদের দেওয়া আগুনে পুড়ে আহত হওয়ার দুই দিন পর মারা গেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশের উন্নাও জেলার এক তরুণী। শুক্রবার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

ভারতে একের পর এক খুন আর ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। এ অবস্থায় সারা বিশ্বের কাছে ভারত ধর্ষণের রাজধানী বলে মন্তব্য করেছেন কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী।

শনিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে কেরালার ওয়ানাডে আয়োজিত এক জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

জিনিউজ’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধর্ষণ মামলার শুনানিতে অংশ নিতে যাওয়ার পথে অভিযুক্তদের দেওয়া আগুনে পুড়ে আহত হওয়ার দুই দিন পর মারা গেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশের উন্নাও জেলার এক তরুণী। শুক্রবার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে রাহুল গান্ধি বলেন, বিশ্বের কাছে ধর্ষণের রাজধানী ভারত। বিদেশি রাষ্ট্রগুলির প্রশ্ন, কেন ভারত নিজের মেয়ে-বোনদের নিরাপত্তা দিতে পারে না। উত্তরপ্রদেশের একজন বিজেপি বিধায়ক ধর্ষণের অভিযুক্ত এবং প্রধানমন্ত্রী একটা শব্দও বললেন না।

ওই তরুণীর মৃত্যু নিয়ে এক টুইট বার্তায় রাহুল বলেন, ন্যায় ও নিরাপত্তার জন্য লড়াই করতে করতে আরও এক মেয়ের মৃত্যু হলো।

এদিকে, ওই তরুণীর মৃত্যুকে ঘিরে শনিবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত উত্তর প্রদেশসহ ভারতের জাতীয় রাজনীতি। উত্তর প্রদেশের বিজেপি শাসিত সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছেন বিরোধীরা। সরব হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও। সকালে তিনি ওই তরুণীর বাড়িতে যান।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী প্রশ্ন রাখেন, গত এক বছর ধরে ওই তরুণী ও তার পরিবারকে ভয়-হুমকির শিকার হতে হয়েছে। কেনো তাদেরকে নিরাপত্তা দেওয়া গেলো না।

Download Nulled WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
udemy paid course free download