ভারতে একদিনেই ৫০ চিকিৎসকের মৃত্যু

চলতি বছর সবচেয়ে বেশি চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে বিহারে। সেখানে ৬৯ জন চিকিৎসক প্রাণ হারিয়েছেন করোনাভাইরাসে। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উত্তরপ্রদেশ। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে ৩৪ জন চিকিৎসক করোনার বলি হয়েছেন। রাজধানী নয়াদিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২৭ জন চিকিৎসক।

করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে এখনো পর্যন্ত ভারতে প্রাণ হারিয়েছেন ২৪৪ জন চিকিৎসক। যার মধ্যে রবিবারই ৫০ জন মারা গেছেন।

আতঙ্কিত হওয়ার মতো এই তথ্য দিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন তথা আইএমএ।

আইএমএর জেনারেল সেক্রেটারি ডা. জয়েশ লেলে দেশটির সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক যে আমরা গত রবিবার ভারতজুড়ে ৫০ জন এবং এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের পর থেকে দ্বিতীয় ঢেউয়ে ২৪৪ জন চিকিৎসককে হারিয়েছি।”

চলতি বছর সবচেয়ে বেশি চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে বিহারে। সেখানে ৬৯ জন চিকিৎসক প্রাণ হারিয়েছেন করোনাভাইরাসে। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উত্তরপ্রদেশ। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে ৩৪ জন চিকিৎসক করোনার বলি হয়েছেন। রাজধানী নয়াদিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২৭ জন চিকিৎসক।

আইএমএ থেকে জানানো হয়েছে, গত বছর করোনা সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ে ভারতে ৭৩০ জন চিকিৎসক মারা যান। যদিও সরকারি হিসাবে এ সংখ্যা ছিল চার ভাগের এক ভাগ।

সংস্থার প্রেসিডেন্ট জে এ জয়লাল বলেন, “গত বছর করোনায় প্রায় ৭৩০ জন চিকিৎসককে হারিয়েছিলাম আমরা। এবার খুব অল্প সময়ের মধ্যে ২৪৪ জনকে হারিয়েছি। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ সকলের কাছেই প্রাণঘাতী হয়ে উঠছে, বিশেষ করে যারা সামনের সারিতে থেকে পরিস্থিতির মোকাবিলা করছেন তাদের জন্য। আমাদের সমস্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের করোনার প্রতিষেধক নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।”

আইএমএ বলছে, মৃত চিকিৎসকদের মধ্যে বয়সে সবচেয়ে ছোট ২৫ বছরের আনাস মুজাহিদ। নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর হাসপাতালের জুনিয়র আবাসিক চিকিৎসক ছিলেন তিনি। করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মারা যান আনাস। সবচেয়ে প্রবীণ বিশাখাপত্তনমের এস সত্যমূর্তি, ৯০ বছর বয়সী এ চিকি৭সক ইএনটি বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন।

Download Best WordPress Themes Free Download
Free Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download Premium WordPress Themes Free
udemy paid course free download