ভেরিফাইড কলের ফিচার আনল গুগল

অ্যান্ড্রয়েড পুলিশের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গুগলের ভেরিফাইড কল ফিচারটি অন্যান্য কল স্ক্রিনিং ফিচার অ্যাপগুলো থেকে আলাদা। তবে এই তালিকায় গুগল কর্তৃপক্ষের দেওয়া নির্দিষ্ট কিছু নীতিমালা অনুসরণ করে আসতে হবে। এরমধ্যে সঠিক পরিচয়, ফোনকলের উদ্দেশ্য এবং লোগো জমা দেওয়ার পরে গুগল কর্তৃক সেই প্রতিষ্ঠানটিকে একটি ‘ভেরিফাইড ব্যাজ’ দেওয়া হবে।

সম্প্রতি ‘ভেরিফাইড কলস’ নামে একটি নতুন ফিচার চালু করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট গুগল।

এই ফিচার ব্যবহার করে ফোন রিসিভ করার আগে সেই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের পরিচয় জানা যাবে।

অ্যান্ড্রয়েড পুলিশের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গুগলের ভেরিফাইড কল ফিচারটি অন্যান্য কল স্ক্রিনিং ফিচার অ্যাপগুলো থেকে আলাদা।

তবে এই তালিকায় গুগল কর্তৃপক্ষের দেওয়া নির্দিষ্ট কিছু নীতিমালা অনুসরণ করে আসতে হবে।

এরমধ্যে সঠিক পরিচয়, ফোনকলের উদ্দেশ্য এবং লোগো জমা দেওয়ার পরে গুগল কর্তৃক সেই প্রতিষ্ঠানটিকে একটি ‘ভেরিফাইড ব্যাজ’ দেওয়া হবে।

গুগল কর্তৃপক্ষ এক ব্লগ বিবৃতিতে জানায়, ভেরিফাইড কল ফিচারটি বাই ডিফল্ট চালু থাকবে।

তবে ইউজার চাইলে যেকোনো সময় ফিচারটি বন্ধ রাখতে পারবে।

যেভাবে কাজ করবে গুগলের ভেরিফাইড ফিচারটি:

যেকোনো বিজনেস কলের আগে গুগল তাদের ডেডিকেটেড ভেরিফাইড কল সার্ভারে ফোন নাম্বারটি পাঠাবে এবং কী কারণে ফোন করা হচ্ছে তা জেনে নেবে।

তাই খাবার ডেলিভারি কিংবা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার কোম্পানির ফোনকল সম্পর্কে ইউজার আগে থেকেই জানতে পারবে।

ইউজারদের তথ্যের গোপনীয়তা নিশ্চিত করতে গুগল জানায়, এই ফিচারের জন্য ইউজারদের কোনো ডেটা সংগ্রহ করা হবে না এবং ফোনকলটি শেষ হওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই সেই তথ্য মুছে দেবে।

Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
free download udemy course