মস্তিষ্ক সুস্থ রাখার সহজ ৫ ব্যায়াম

সাধারণত শরীর সুস্থ রাখার জন্য আমরা প্রতিদিন নানা রকম ব্যায়াম করি। খাবারদাবারে সচেতন হই। কিন্তু যে মস্তিষ্ক দ্বারা আমরা চালিত হয়, প্রতিমুহূর্তের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি সেই মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখার জন্য কি আমরা কোনও ব্যায়াম করি? যদি না করি তবে চলুন আজ থেকেই সেই অভ্যাস রপ্ত করি।

শরীর সুস্থ থাকলে মনও সুন্দর থাকে। আবার মন ভালো থাকলে তা শরীরেও ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। অতএব প্রত্যেক মানুষের জন্য শরীর ও মন সুস্থ রাখার খুবই প্রয়োজন।

সাধারণত শরীর সুস্থ রাখার জন্য আমরা প্রতিদিন নানা রকম ব্যায়াম করি। খাবারদাবারে সচেতন হই। কিন্তু যে মস্তিষ্ক দ্বারা আমরা চালিত হয়, প্রতিমুহূর্তের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি সেই মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখার জন্য কি আমরা কোনও ব্যায়াম করি? যদি না করি তবে চলুন আজ থেকেই সেই অভ্যাস রপ্ত করি।

মস্তিষ্ক চর্চার সহজ কিছু টিপস দেয়া হলো:
সুডোকু কিংবা দাবা খেলুন: কথায় বলে অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা। মস্তিষ্ককে তাই অলস না রেখে এর ব্যায়ামের জন্য মাঝেমধ্যে সুডোকু কিংবা দাবা খেলুন। তাতে বুদ্ধির যেমন চর্চা হবে, মস্তিষ্কও সুস্থ থাকবে।

দৌড়ানো: প্রতিদিন নিয়ম করে দৌড়ানোর অভ্যেস করুন। দৌড়ালে মস্তিষ্কের ‘হিপোক্যাম্পাস’ অংশে নতুন কোষ সৃষ্টি হয়। এই ‘হিপোক্যাম্পাস’ নতুন কৌশল শেখা ও স্মৃতিশক্তি বাড়ায়। মস্তিষ্ক আরও শক্তিশালী হয়। মুখস্থ করার ক্ষমতা বাড়ে।

অ্যারোবিকস: সপ্তাহে অন্তত ১৫০ ঘণ্টা কমবেশি অ্যারোবিকস শরীরচর্চা অনুশীলন করুন। স্মৃতিভংশ, হতাশাগ্রস্ততা ও মানসিক অস্বস্তি দূর করতে এই ব্যায়াম খুবই উপকারী।

সাইকেল চালান: শহরে সাইকেল কমই দেখা যায়। গ্রামাঞ্চলে এখনও সব বয়সী মানুষ এই বাহনে যাতায়াত করে। সাইকেল চালালে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। মস্তিষ্কে নতুন কোষ তৈরিতে সহায়তা করে। মন-মেজাজও ভালো থাকে।

ধ্যান: মস্তিষ্ক সুস্থ রাখার আরেকটি বড় কৌশলের নাম ধ্যান। ধ্যানও এক ধরনের মস্তিষ্কের ব্যায়াম। এ থেকে মনোসংযোগ বাড়ে। মানসিক চাপ কমে। মনও থাকে ফুরফুরে।

Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
free download udemy course