মাস্কে ভর্তুকির প্রস্তাব দিলেন কৃষিমন্ত্রী

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকা না আসা পর্যন্ত সরকারকে ভর্তুকি দিয়ে আরও কম মূল্যে সাধারণ মানুষের জন্য মাস্ক সরবরাহের প্রস্তাব দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। বুধবার (১২ আগস্ট) সচিবালয়ে অনলাইনে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির ১৮তম সভায় যুক্ত হয়েছে তিনি এ প্রস্তাব করেন। ভার্চ্যুয়াল এ সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকা না আসা পর্যন্ত সরকারকে ভর্তুকি দিয়ে আরও কম মূল্যে সাধারণ মানুষের জন্য মাস্ক সরবরাহের প্রস্তাব দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

বুধবার (১২ আগস্ট) সচিবালয়ে অনলাইনে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির ১৮তম সভায় যুক্ত হয়েছে তিনি এ প্রস্তাব করেন।

ভার্চ্যুয়াল এ সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।

কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ভ্যাকসিন (টিকা) যাই আসুক, আমাদের সবচেয়ে বড় প্রোটেকশন হচ্ছে মাস্ক।

কোভিড-১৯ রোধে প্রয়োজনে ভর্তুকি দিয়ে আরও কম মূল্যে সাধারণ মানুষের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে মাস্ক সরবরাহ করতে হবে।

মাস্ক না পরলে সব দেশেই জরিমানা করা হয়, আমাদের দেশেও অন্তত ১০০-২০০ টাকা করে জারিমানা করা উচিত।

একই সঙ্গে পুলিশের মাধ্যমে এ শাস্তি দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে আগামী সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অনুষ্ঠেয় বৈঠকে উত্থাপন করতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানান কৃষিমন্ত্রী।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শাস্তি দেওয়া হচ্ছে।

আইনগতভাবে পুলিশ জরিমানা করতে পারে কি-না, বিষয়টি আমার জানা নেই।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে প্রশ্ন করে কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এতো হতাশার কথা বলে কেন? আপনারা একটু বইলেন।

এদিকে, করোনা ভাইরাস দূর না হলেও স্বাস্থ্যবিধি মানতে মানুষের মধ্যে উদাসীনতা সৃষ্টি হওয়ায় কঠোর হচ্ছে সরকার।

এজন্য স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে ফের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাসহ কঠোর পদক্ষেপ নিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
free download udemy course