মাস্ক না পরলে করোনার ঝুঁকি বাড়ে ২৩ গুণ

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ভ্যাকসিন আসার আগে মাস্ককেই প্রধান ও শক্তিশালী অস্ত্র হিসেবে দেখছেন চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা। তাই সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্ক ব্যবহারের কথা বারবার বলে আসছেন তারা। এ জন্য বিশ্বের সব দেশেই মাস্ক ব্যবহারে বেশ কড়াকড়ি আরোপ করা হয়।

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ভ্যাকসিন আসার আগে মাস্ককেই প্রধান ও শক্তিশালী অস্ত্র হিসেবে দেখছেন চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা।

তাই সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্ক ব্যবহারের কথা বারবার বলে আসছেন তারা। এ জন্য বিশ্বের সব দেশেই মাস্ক ব্যবহারে বেশ কড়াকড়ি আরোপ করা হয়।

এবার এক গবেষণায় দেখা গেছে, মাস্ক পরা আর না পরা- এই দুই অবস্থায় পার্থক্য আকাশ-পাতাল। মাস্ক না পরা থাকলে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা ২৩ গুণ বেড়ে যায়।

ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির এক গবেষণায় দেখা গেছে, হাঁচি বা কাশির পর বাতাসে ড্রপলেট ছড়ানোর মাধ্যমে ‘কফ ক্লাউড’ তৈরি হয় এবং তা ৫ থেকে ৮ সেকেন্ড থাকে।

মাস্ক পরা না থাকলে এর মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ দ্রুত ছড়িতে পড়তে পারে। তবে ওই সময়ের পর আর বাতাসে ভাসমান অবস্থায় থাকতে পারে না ড্রপলেট।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের (সিডিসি) পরিচালক রবার্ট রেডফিল্ড এ প্রসঙ্গে বলেন, করোনার বিস্তার প্রতিরোধে ভ্যাকসিনের চেয়েও শক্তিশালী সুরক্ষা দেবে মাস্ক।

তিনি বলেন, তাদের কাছে বিজ্ঞানসম্মত প্রমাণ রয়েছে যে করোনায় মাস্কই সবচেয়ে ভালো সুরক্ষা প্রদান করছে।

এদিকে গেল ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে নতুন করে ৪ লাখ ৮০ হাজার মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যা একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড।

এর মধ্যে শুধু ইউরোপের দেশগুলোতেই আক্রান্ত হয় ২ লাখের বেশি। এ নিয়ে বিশ্বে মোট রোগীর সংখ্যা ৪ কোটি ২১ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। করোনায় মারা গেছেন ১১ লাখ ৪৪ হাজার।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে হু-হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। রোগীর সেবা নিশ্চিত করতে দেশটির পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসকদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা রোগীর চিকিৎসায় রেমডেসিভির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
free download udemy paid course