ম্যাচ ফিক্সিং এড়াতে বিশ্বকাপে আইসিসির নতুন কৌশল

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রস্তুতি ম্যাচ থেকেই প্রতিটি দলের সঙ্গে একজন করে দুর্নীতি দমন কর্মকর্তা থাকবেন। আসর শেষে দেশের বিমানে ওঠার আগ পর্যন্ত দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি।

এবারের ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে ১০ দল। কম দল অংশ নিলেও আসরের পরিধি বেশ বড়। পরিধি বাড়ায় থাকছে ম্যাচ ফিক্সিং থেকে শুরু করে একাধিক রকমের দুর্নীতি হওয়ার সম্ভাবনাও।

তবে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপকে সবার সামনে নজির হিসেবে তুলে ধরতে বদ্ধপরিকর আইসিসি। সেজন্য ১০ দলের প্রতিটির সঙ্গে একজন করে দুর্নীতি-দমন কর্মকর্তা রাখার ব্যবস্থা করছে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রস্তুতি ম্যাচ থেকেই প্রতিটি দলের সঙ্গে একজন করে দুর্নীতি দমন কর্মকর্তা থাকবেন। আসর শেষে দেশের বিমানে ওঠার আগ পর্যন্ত দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি।

অতীতে প্রতিটি ভেন্যুতে একজন করে কর্মকর্তা নিয়োগ রাখত আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিট (আকসু)। ফলে মাঠের বাইরে তাদের দেখা পেতেন না ক্রিকেটারেরা। তবে সেই কর্মকর্তারাই এখন থেকে প্রতিটি দলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত থাকবেন। এমনকি খেলোয়াড়েরা শপিং মলে গেলেও তাদের সঙ্গে থাকবেন তারা।

কেবল দুর্নীতি ঠেকাতেই এ কর্মকর্তাদের নিয়োগ দিচ্ছে না আকসু। ক্রিকেটারদের সঙ্গে যেন সার্বক্ষণিক যোগাযোগ থাকে সেই উদ্দেশ্যও আছে। কোনো অসংগতি দেখলেই ক্রিকেটারেরা যেন তাদের শরণাপন্ন হতে পারেন কিংবা অবহিত করতে পারেন।

Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
download udemy paid course for free