যুক্তরাষ্ট্রে টিকটক নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প

সামাজিক ভিডিও অ্যাপ টিকটক এবার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, শিগগিরই টিকটক নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে তার দেশ। শুক্রবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। ট্রাম্প প্রশাসনের অভিযোগ, টিকটকের মতো চীনা অ্যাপ যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ওপর গোয়েন্দাগিরি চালিয়ে যাচ্ছে। এর আগে ভারত ওই অ্যাপটি নিষিদ্ধ করেছে। খবর সিএনএন ও বিবিসির।

সামাজিক ভিডিও অ্যাপ টিকটক এবার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, শিগগিরই টিকটক নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে তার দেশ। শুক্রবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ট্রাম্প প্রশাসনের অভিযোগ, টিকটকের মতো চীনা অ্যাপ যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ওপর গোয়েন্দাগিরি চালিয়ে যাচ্ছে। এর আগে ভারত ওই অ্যাপটি নিষিদ্ধ করেছে। খবর সিএনএন ও বিবিসির।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো যুক্তরাষ্ট্রেও জনপ্রিয় সামাজিক ভিডিও অ্যাপ টিকটক। চীনের বাইটড্যান্স সংস্থার মালিকানাধীন অ্যাপটি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আপত্তি তুলছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন ও রাজনীতিবিদদের একাংশ।

তাদের অভিযোগ, টিকটকের মতো অ্যাপ দিয়ে আমেরিকার উপর নজরদারি চালিয়ে যাচ্ছে চীন। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও টিকটকের বিরুদ্ধে দেশের নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করার অভিযোগ তুলেন।

তিনি বৃহস্পতিবার হাউস ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটির সদস্যদের বলেন, ‘টিকটক সহ ১০৬ টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত, যা ভারতের নাগরিকদের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষাকে ঝুঁকির মুখে ফেলছিল।’

এরই ধারাবাহিকতায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুক্রবার বলেন, আমরা টিকটকের দিকে নজর দিচ্ছি।

আমরা টিকটক নিষিদ্ধ করতে চলেছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা হয়ত আরও অন্য কিছু কাজও করব। বেশ কয়েকটি বিকল্প রয়েছে, কিন্তু অনেক কিছুই ঘটছে, তাই তা খতিয়ে দেখা দরকার। তবে টিকটকের বদলে আমরা অনেক বিকল্পের সন্ধানে রয়েছি।

এর আগে শুক্রবার রাতে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানায়, ট্রাম্প প্রশাসন শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রে টিকটক পরিচালনার মালিকানা হস্তান্তর করতে চীনের বাইটড্যান্সকে আদেশ দেবে। টিকটক পরিচালনার জন্য দেশটি মাইক্রোসফটের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছে।

তবে সেই সম্ভাবনা নাকচ করেই দিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

তিনি জানান, টিকটকের মতো সংস্থাকে নিষিদ্ধ করতে তিনি জরুরি অর্থনৈতিক ক্ষমতাও প্রয়োগ করতে পারেন।

বিদেশি বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিষয় খতিয়ে দেখার জন্য গঠিত কমিটির বৈঠকের পর পরই ট্রাম্পের এমন মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

এদিকে নজরদারির অভিযোগ নিয়ে টিকটকের সিইও এবং বাইটড্যান্সের সিওও কেভিন মায়ের আগেই জানিয়েছিলেন, ‘আমাদের কোনও রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডা নেই। আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য মানুষকে প্রাণবন্ত রাখা, যাতে সবাই জীবন উপভোগ করতে পারেন।’

Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
free download udemy paid course