টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার সময় আটক করা হয়েছে ৬ বাংলাদেশিকে। সোমবার পৃথক দুটি অভিযানে দেশটির পুলিশ তাদের আটক করে। এ উপায়ে বাংলাদেশিদের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এক বছরে এভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করার সময় আটক করা হয় ৬৬৮ বাংলাদেশিকে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশকালে ৬ বাংলাদেশি আটক

টেক্সাস সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার সময় আটক করা হয়েছে ৬ বাংলাদেশিকে। সোমবার পৃথক দুটি অভিযানে দেশটির পুলিশ তাদের আটক করে। এ উপায়ে বাংলাদেশিদের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এক বছরে এভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করার সময় আটক করা হয় ৬৬৮ বাংলাদেশিকে।

২০১৭ সালের অক্টোবরের তুলনায় এ বছর নভেম্বরে এ সংখ্যা শতকরা ১০ ভাগ বেশি। এ সময়ে লারেডো সেক্টর এজেন্টরা ৬৬৮ বাংলাদেশি অভিবাসীকে আটক করেছে। আগের বছরের মোট বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসীর তুলনায় এ সংখ্যা শতকরা প্রায় ২৭০ ভাগ বেশি।

ব্রেইতবার্তের রিপোর্টে বলা হয়েছে, দক্ষিণ ও মধ্য টেক্সাসের সীমান্তে রয়েছে উন্মুক্ত নদী। সেই সীমান্ত একেবারে খোলা। এমন সীমান্ত শত শত মাইলের। এই পথটিকে ব্যবহার করছে অবৈধ অভিবাসীরা। এ পথে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের জন্য অভিবাসীরা দালালদের দিচ্ছে জনপ্রতি ২৭ হাজার ডলার করে।

লারেডো সাউথ বর্ডার পেট্রোল স্টেশনে যে এজেন্টদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তারা শনিবার টেক্সাসের মাস্টারসন রোডে সন্দেহজনকভাবে চার অভিবাসীর কাছে যায়। এ সময় লারেডো সেক্টর লাইন অপারেশনের অংশ হিসেবে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

পুলিশ জানতে পারে ওই চার যুবক হলেন বাংলাদেশি। পরেরদিন সকালে একই সংস্থা আরও একটি অভিযান চালায়। লারেডোর ওলিয়ান্দার স্ট্রিটে তারা দেখতে পায় দু’জন সন্দেহজনক যুবক হাঁটাহাঁটি করছে। তারা তাদের কাছে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাতেও বেরিয়ে আসে যে, তারাও বাংলাদেশি। তাদেরকে যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হচ্ছে পাচার করে।

Download Premium WordPress Themes Free
Download Best WordPress Themes Free Download
Premium WordPress Themes Download
Download Premium WordPress Themes Free
free download udemy paid course