যেভাবে ধ্বংস করবেন মাস্কের জীবাণু

মাস্ক কেবল ব্যবহার করলে চলবে না। কিছু নিয়মও জানা থাকা জরুরি। না হলে উল্টো হতে পারে বিপদ! বিশেষজ্ঞরা মাস্ক ব্যবহারের পক্ষে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। সচেতন মানুষেরাও গুরুত্ব সহকারে এ পরামর্শ মেনে চলছেন। প্রতিদিন নতুন নতুন মাস্ক ব্যবহার করা সম্ভব নয় বলে অনেকে মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করার সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। এখানে মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করার নিরাপদ ও কার্যকর প্রক্রিয়া সম্পর্কে বলা হলো।

মাস্ক কেবল ব্যবহার করলে চলবে না। কিছু নিয়মও জানা থাকা জরুরি। না হলে উল্টো হতে পারে বিপদ!

বিশেষজ্ঞরা মাস্ক ব্যবহারের পক্ষে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। সচেতন মানুষেরাও গুরুত্ব সহকারে এ পরামর্শ মেনে চলছেন।

প্রতিদিন নতুন নতুন মাস্ক ব্যবহার করা সম্ভব নয় বলে অনেকে মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করার সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন।

এখানে মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করার নিরাপদ ও কার্যকর প্রক্রিয়া সম্পর্কে বলা হলো।

কাপড়ের মাস্ক:

পোশাকের মতো ধুয়ে কাপড়ের মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করতে পারবেন।

কাপড়ের মাস্কের করোনাভাইরাস ধ্বংস করতে ওয়াশিং মেশিনে দিয়ে দিন, কিন্তু এর সঙ্গে অন্যান্য কাপড় দেবেন না।

ওয়াশিং মেশিনের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ করুন ও সাধারণ লন্ড্রি ডিটারজেন্ট ব্যবহার করুন। এতেই কাপড়ের মাস্কের করোনাভাইরাস ধ্বংস হবে।

হাতে কাপড়ের মাস্ক ধুতে গেলে আগে ব্লিচ সল্যুশন তৈরি করতে হবে। এক লিটার পানিতে ৪ চা-চামচ ব্লিচ মিশিয়ে সল্যুশন তৈরি করতে পারেন।

আধ লিটার পানিতে ২ চা-চামচ ব্লিচ মেশালেই হবে। একাজে গরম পানি নয়, কক্ষ তাপমাত্রার পানি ব্যবহার করুন।

এবার এ সল্যুশনে কাপড়ের মাস্ককে ৫ মিনিট ডুবিয়ে রাখুন। তারপর কক্ষ তাপমাত্রার পানিতে ধুয়ে নিন।

সার্জিক্যাল মাস্ক ও এন-৯৫ রেসপিরেটর:

এন-৯৫ রেসপিরেটর ও সার্জিক্যাল মাস্ককে ভাইরাসমুক্ত করতে সময়ের ওপর নির্ভর করতে হবে।

উভয় মাস্ককে পুনরায় ব্যবহারের আগে ভাইরাসমুক্ত করতে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।

অনেকে এসব মাস্কের ওপর জীবাণুনাশক তরল ছিটাতে বলেন, কিন্তু এতে ক্ষতি হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

ব্যবহৃত মাস্ককে পুনরায় ব্যবহারের আগে ৭২ ঘণ্টা কোনো নিরাপদ স্থানে ঝুলিয়ে রাখুন অথবা কাগজের ঠোঙায় রেখে দিন।

গবেষণায় দেখা গেছে, এসব মাস্কের করোনাভাইরাস সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা সক্রিয় থাকে। কাগজের ঠোঙা ছাড়া অন্য ব্যাগ ব্যবহার করবেন না।

কাগজ ব্রিদেবল ম্যাটারিয়াল বলে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করোনাভাইরাস ধ্বংস হবে এটা নিশ্চিত।

কিন্তু প্লাস্টিকের ব্যাগ অথবা অন্য ব্যাগ ব্যবহার করলে এ সময়ের মধ্যে ভাইরাসটি নিষ্ক্রিয় নাও হতে পারে,

কারণ মাস্কে তরলের উপস্থিতি থাকলে এসব ব্যাগ ইনকিউবেটর হিসেবে কাজ করতে পারে। তথ্যসূত্র: কিচেন।

Download WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
Download Nulled WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
download udemy paid course for free