যে কারণে সাপ দেখলেই ঝগড়ায় জড়ায় বেজি

বেজি আর সাপের দ্বৈরথের কথা সবারই জানা। বেজি আর সাপের ল'ড়াইয়ে সবসময় জিতে যায় বেজি। বিভিন্ন গল্পেও বেজি থাকে নায়ক হিসেবে আর সাপকে রাখা হয় ভিলেন হিসেবে। কোবরার মতো বি'ষধ'র সাপও বেজির কাছে প্রাণ হা'রায়। অনেকে সে কারণে বাড়ির পাশে বেজি থাকলে সাপের ভ'য় কম পান। কারণ, যেখানে বেজি থাকে, সেই এলাকায় বি'ষধ'র গোখরা সাপও থাকার সাহস করে না।

বেজি আর সাপের দ্বৈরথের কথা সবারই জানা। বেজি আর সাপের ল’ড়াইয়ে সবসময় জিতে যায় বেজি।

বিভিন্ন গল্পেও বেজি থাকে নায়ক হিসেবে আর সাপকে রাখা হয় ভিলেন হিসেবে।

কোবরার মতো বি’ষধ’র সাপও বেজির কাছে প্রাণ হা’রায়। অনেকে সে কারণে বাড়ির পাশে বেজি থাকলে সাপের ভ’য় কম পান।

কারণ, যেখানে বেজি থাকে, সেই এলাকায় বি’ষধ’র গোখরা সাপও থাকার সাহস করে না।

অনেকেই মনে করেন, বেজির শরীরে কোবরার বি’ষ ন’ষ্ট করে দেওয়ার মতো অ্যা’ন্টিব’ডি আছে। তবে এটি সত্য নয়।

আসলে বেজি নিজের বিভিন্ন কৌ’শলে কোবরার কা’ম’ড় থেকে নিজেকে র’ক্ষা করে।

বেজির শরীরের আকার ও তার বিভিন্ন ধরনের টে’কনি’কের কারণে যে কোনো ধরনের সাপ তাদের প’রা’স্ত করতে পারে না।

অন্যদিকে কৌ’শল ব্যবহার করে কোবরার মাথা কা’ম’ড়ে ধ’রে মে’রে ফে’লতে পারে বেজিরা।

বাড়ির আশেপাশে বেজি থাকার সুবিধা হলো, ইঁদুর ও সাপের উৎ’পা’ত থেকে র’ক্ষা পাওয়া যায়। তবে মুরগির বাচ্চা থেকে শুরু করে হাঁসের বাচ্চা এরা খে’য়ে ফেলে।

বছরে দুই থেকে তিনবার বাচ্চা দেয় বেজি। প্রতিবার দুই থেকে পাঁচটি বাচ্চা হয়। মাটির নিচের গ’র্তে এসব বাচ্চার দেখভাল করে মা বেজিরা।

বাচ্চাদের জন্য এবং নিজেদের খাবারের জন্য বেজি সবসময় সাপকে শ’ত্রু হিসেবে দেখে।

এ কারণে, সাপ দেখলেই তা’ড়িয়ে দেওয়া কিংবা মে’রে ফে’লার জন্য উ’ঠেপড়ে লা’গে বেজি।সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
udemy course download free