রোহিঙ্গা নিপীড়নের ঘটনায় ৩ সেনা কর্মকর্তাকে শাস্তি দিল মিয়ানমার

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়নের ঘটনায় তিন সেনা কর্মকর্তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মিয়ানমারের একটি সামরিক আদালত। আলজাজিরা জানায়, দেশটির সেনা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। জাতিসংঘের আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রাখাইনে মুসলিম সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অভিযোগ আসার পর কোনো সেনাসদস্যের বিরুদ্ধে এমন বিরল ব্যবস্থা নিল দেশটি।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়নের ঘটনায় তিন সেনা কর্মকর্তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মিয়ানমারের একটি সামরিক আদালত।

আলজাজিরা জানায়, দেশটির সেনা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

জাতিসংঘের আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রাখাইনে মুসলিম সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অভিযোগ

আসার পর কোনো সেনাসদস্যের বিরুদ্ধে এমন বিরল ব্যবস্থা নিল দেশটি।

২০১৭ সালে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে সাড়ে সাত লাখের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

তাদের ওপর গণহত্যা, গণধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ঘটানোর অভিযোগ আনা হয় দেশটির বিরুদ্ধে।

অধিকার সংগঠনগুলো অভিযোগ করে, নিরাপত্তা বাহিনী অনেক রোহিঙ্গা গ্রামে নৃশংসতা চালায়।

যার মধ্যে গু দার পাইন গ্রামে মিলেছে অন্তত পাঁচটি গণকবর।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী শুরুতে এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসলেও গত সেপ্টেম্বরে একটি সামরিক আদালত বসায়

এবং স্বীকার করে যে, গ্রামটিতে নির্দেশনা অনুসরণে সেনাদের মধ্যে দুর্বলতা ছিল।

মঙ্গলবার কমান্ডার-ইন-চিফ অফিস ঘোষণা করে যে, সামরিক আদালত তিনজন সেনা সদস্যকে দোষী সাব্যস্ত করেছে এবং শাস্তি দিয়েছে।

তবে এই ব্যাপারে বিস্তারিত কিছুই জানানো হয়নি।  ফলে সুনির্দিষ্ট কী অভিযোগে সেনা সদস্যদের দোষী সাব্যস্ত করা হলো

এবং তাদের কী ধরনের শাস্তি দেয়া হয়েছে সেসম্পর্কে কিছ জানা যায়নি।

Premium WordPress Themes Download
Free Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
free download udemy paid course