শীতে গলাব্যথা দূর করার ঘরোয়া ৮ উপায়

শীতে গলাব্যথার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই শীতের সময়ে শরীরের নিতে হয় বাড়তি যত্ন। নাক দিয়ে পানি ঝরা, হাঁচি-কাশি, গলা ও বুকব্যথা, সামান্য জ্বর, ঠাণ্ডা লাগা অতিসাধারণ অথচ ছোঁয়াচে রোগ। শীতে এ রোগটির প্রকোপ বেড়ে যায়। বিভিন্ন ধরনের ভাইরাস থেকে এ রোগ হতে পারে।

শীতে গলাব্যথার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই শীতের সময়ে শরীরের নিতে হয় বাড়তি যত্ন। নাক দিয়ে পানি ঝরা, হাঁচি-কাশি, গলা ও বুকব্যথা, সামান্য জ্বর, ঠাণ্ডা লাগা অতিসাধারণ অথচ ছোঁয়াচে রোগ। শীতে এ রোগটির প্রকোপ বেড়ে যায়। বিভিন্ন ধরনের ভাইরাস থেকে এ রোগ হতে পারে।

আসুন জেনে নিই গলাব্যথা ভালো করার ঘরোয়া কয়েকটি উপায়-

লবণ জলের গারগল

গলাব্যথা হলে লবণপানির গারগল করুন। এক গ্লাস হালকা গরম পানি নিন। এতে এক চা চামচ লবণ ভালোভাবে মিশিয়ে গারগল করুন।

আদা

আদায় অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যের জন্য এটি গলাব্যথা সারাতে সহায়তা করে। পানি গরম করে তাতে কয়েক টুকরো ফ্রেশ আদা দিন। এর পর এটি প্রায় ৫-১০ মিনিটের জন্য ফোটান। দিনে কমপক্ষে দুবার এই পানি পান করুন। এতে এক চা চামচ মধুও দিতে পারেন।

লেবুর রস

বিশেষজ্ঞদের মতে, লেবু শরীরের টক্সিন দূর করে। গলায় ব্যথায় এক গ্লাস গরম জলে লেবুর রস ও এক চা চামচ মধু ভালোভাবে মেশান। দিনে অন্তত দুবার এটি পান করুন।

দারুচিনি

কয়েক ফোঁটা দারুচিনি তেলের সঙ্গে এক চা চামচ মধু মিশ্রিত করুন। দিনে একবার এটি ব্যবহার করুন।

মধু

প্রাচীনকাল থেকেই গলাব্যথা নিরাময়ের জন্য মধু ব্যবহৃত হয়। এক কাপ গরম পানিতে এক থেকে দুই চামচ মধু মেশান এবং দিনে দুই থেকে তিনবার পান করুন।

ভাপ নিন

প্রথমে কান-মাথা ভালো করে জড়িয়ে নিন কাপড় দিয়ে। এর পর গরম পানিতে সামান্য লবণ দিয়ে ভাপ নিন।

রসুন

রসুন গলাব্যথা নিরাময়ে সহায়তা করে। রসুনের মধ্যে থাকা অ্যালিসিন গলাব্যথার কারণ ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলতে সহায়তা করে।

লবঙ্গ

মাঝেমাঝেই মুখে দুটি লবঙ্গ রাখুন এবং সেগুলো নরম হওয়ার পর চিবিয়ে গিলে ফেলুন।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
download udemy paid course for free