শীতের শুকনো ধুলোর হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে সপ্তাহে অন্তত দুইদিন এক্সফোলিয়েটর ব্যবহার করতে হবে। ক্লিনজারের মতোই এক্সফোলিয়েটরও এমন হবে যা ত্বকের কোমলতা রক্ষার পাশাপাশি মৃত ত্বকের কোষ সরিয়ে ভিতরের তরতাজা ত্বক ফুটিয়ে তোলে।

শীতে ত্বক ভালো রাখতে যা করবেন

শীত মানেই ত্বক, চুল, হাত-পা আর ঠোঁটের অবস্থা দফারফা। শীতের তীব্রতায় অলসতার কারণে আলাদা করে ত্বকের যত্ন নিতেও মন চায় না অনেকের। কিন্তু তাতে কি আর সুন্দর ত্বক পাওয়া যায়! ত্বকের সৌন্দর্যের জন্য প্রয়োজন এর সঠিক পরিচর্যা।

সাধারণ ফেসওয়াশ বা ক্লিনজার ত্বকের আর্দ্রতা শুষে নিয়ে তা শুকনো করে তোলে। তাই এমন ক্লিনজার বেছে নিন যা ত্বকের স্বাভাবিক ভারসাম্য বজায় রাখতে পারে। ক্লিনজারের উপাদানে গ্লিসারিন বা নিমের মতো জিনিস থাকলে তা একদিকে ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা রক্ষা করবে, অনদিকে ব্রণ, ব্ল্যাকহেডের সমস্যাও কমে যাবে।

শীতের শুকনো ধুলোর হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে সপ্তাহে অন্তত দুইদিন এক্সফোলিয়েটর ব্যবহার করতে হবে। ক্লিনজারের মতোই এক্সফোলিয়েটরও এমন হবে যা ত্বকের কোমলতা রক্ষার পাশাপাশি মৃত ত্বকের কোষ সরিয়ে ভিতরের তরতাজা ত্বক ফুটিয়ে তোলে।

বেশি গরম পানি ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা শুষে নেয়। তাই বেশি গরম পানির বদলে কুসুমগরম পানি ব্যবহার করুন। গোসলের পর হালকা ভেজা গায়েই ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন, এতে ত্বক বেশিক্ষণ নরম থাকবে।

মুখে হালকাভাবে ময়েশ্চারাইজার মাসাজ করে নিলে ত্বক কোমল তো থাকবেই, নিয়মিত মাসাজে ত্বকের রক্ত সংবহন বেড়ে ত্বক সজীব ও টানটান হয়ে উঠবে।

ত্বককে ভিতর থেকে সুন্দর, স্বাস্থ্যোজ্জ্বল করে তুলতে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। কমলা, মুসুম্বির মতো রসালো ফল খান। পাশাপাশি নিত্যদিনের খাবারে রাখুন বাদাম, মৌসুমী শাক-সবজি। ভিটামিন ই ও সি-সমৃদ্ধ খাবারে ত্বক তরতাজা, উজ্জ্বল হয়ে ওঠে।

Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
free online course