শীতে দূর করুন চুলের রুক্ষতা

শীতে শ্যাম্পু করলেও চুলের মসৃণতা নষ্ট হয়ে যায়। মাথার ত্বক শুষ্ক থাকায় খুশকি যেমন সমস্যায় ফেলে, তেমনই আবহাওয়ার কারণে চুলের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়।  শীতে চুলের মসৃণতা ধরে রাখতে অনেকে বিভিন্ন ধরনের হেয়ার মিস্ট ব্যবহার করেন। তবে বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির হেয়ার মিস্ট চুলের ক্ষতি করতে পারে। এজন্য খুব সহজে বাড়িতেই তৈরি করতে পারেন শীতের স্বাস্থ্যকর চুলের জন্য হেয়ার মিস্ট।

শীতে শ্যাম্পু করলেও চুলের মসৃণতা নষ্ট হয়ে যায়। মাথার ত্বক শুষ্ক থাকায় খুশকি যেমন সমস্যায় ফেলে, তেমনই আবহাওয়ার কারণে চুলের উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়।  শীতে চুলের মসৃণতা ধরে রাখতে অনেকে বিভিন্ন ধরনের হেয়ার মিস্ট ব্যবহার করেন। তবে বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির হেয়ার মিস্ট চুলের ক্ষতি করতে পারে। এজন্য খুব সহজে বাড়িতেই তৈরি করতে পারেন শীতের স্বাস্থ্যকর চুলের জন্য হেয়ার মিস্ট।

একবার তৈরি করে নিলে একটানা চার-পাঁচ দিন চুলের যত্নে এই মিস্ট ব্যবহার করতে পারবেন। চলুন দেখে নেয়া যাক মিস্ট তৈরির উপাদান ও পদ্ধতি সম্পর্কে।

অ্যালোভেরা মিস্ট

ঘন ঘন চুলে আর্দ্রতা কমে গেলে ভরসা রাখতে পারেন অ্যালোভেরা মিস্টে। আধা কাপ অ্যালোভেরা রস, এক কাপ পানি, এক চা চামচ জোজোবা অয়েল ও এক চা চামচ নারকেল তেলেই এই মিস্ট বাজিমাত করবে। এই মিশ্রণ শ্যাম্পুর বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। প্রতি দিন গোসলের পর মিস্ট লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ভাল করে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত তিন দিন ব্যবহার করুন।

টি মিস্ট

এই মিস্টের প্রধান উপকরণ চা পাতা। চায়ের লিকার এমনিতেই চুলের সেরা কন্ডিশনার। তাই চুলের রুক্ষতা দূর করার পাশাপাশি এই মিস্ট চুলকে নরম করে। আধ কাপ গ্রিন টি, এক কাপ পানি, দু’ফোঁটা পিপারমিন্ট অয়েল, এক চা চামচ টি ট্রি অয়েল ও এক চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে ভাল করে ব্লেন্ড করে একটি পুরনো শ্যাম্পুর স্প্রে বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন।

টি ট্রি অয়েল অ্যান্টিফাঙ্গাল হওয়ায় খুশকির সমস্যাও দূরে থাকে। নারকেল তেল চুলে পুষ্টিগুণের জোগান দেবে। প্রতিদিন গোসলের পর মিস্ট লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ভাল করে চুল ধুয়ে নিলেই চুলের লাবণ্য ও আর্দ্রতা বজায় থাকবে।

Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
Download WordPress Themes
udemy paid course free download