সিলেট মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে দেড় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

মামলায় ঠিকাদার সঞ্জয় রায় উল্লেখ করেছেন, ২০১৪ সালে ১৬ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে সিলেট নগরভবন নির্মাণের ওয়ার্ক অর্ডার পায় মাহবুব ব্রাদার্স প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পরবর্তীতে কাজটি সম্পাদনের জন্য একই বছরের ২৩ নভেম্বর মাহবুব ব্রাদার্সের সঙ্গে চুক্তি করে ঠিকাদার সঞ্জয় রায়ের প্রতিষ্ঠান সম্পাতপা এন্টারপ্রাইজ। কাজ শুরুর পর থেকে মাহবুব ব্রাদাসের নামে বিল ইস্যু হতো এবং তাদের কাছ থেকে ঠিকাদার সঞ্জয় রায় চেক গ্রহণ করতেন। 

দুর্নীতি ও প্রতারণার মাধ্যমে ১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বিরুদ্ধে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঠিকাদার সঞ্জয় রায় বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পরবর্তী শুনানির জন্য ১৩ নভেম্বর তারিখ নির্ধারণ করেছেন।

এ মামলায় বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আল জাহিদ দেশ রূপান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ ছাড়া আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলায় মেয়র আরিফ ছাড়া আসামি করা হয়েছে ঢাকার কলাবাগান থানার পান্থপথের ১৫২/৩ বি বীরউত্তম কাজী নুরুজ্জামান সড়কের পিরোজ টাওয়ারের ৬ষ্ট তলার মাহবুব ব্রাদার্স লিমিটেডের পরিচালক শেখ মোস্তাফিজুর রহমানকে।

মামলায় ঠিকাদার সঞ্জয় রায় উল্লেখ করেছেন, ২০১৪ সালে ১৬ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে সিলেট নগরভবন নির্মাণের ওয়ার্ক অর্ডার পায় মাহবুব ব্রাদার্স প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পরবর্তীতে কাজটি সম্পাদনের জন্য একই বছরের ২৩ নভেম্বর মাহবুব ব্রাদার্সের সঙ্গে চুক্তি করে ঠিকাদার সঞ্জয় রায়ের প্রতিষ্ঠান সম্পাতপা এন্টারপ্রাইজ। কাজ শুরুর পর থেকে মাহবুব ব্রাদাসের নামে বিল ইস্যু হতো এবং তাদের কাছ থেকে ঠিকাদার সঞ্জয় রায় চেক গ্রহণ করতেন।

মামলায় বাদী আরো উল্লেখ করেন, নগরভবনের কাজ পাঁচ ভাগ বাকি থাকতে তিনি (ঠিকাদার সঞ্জয় রায়) জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য ভারত চলে যান। ওই সময় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী অর্থ আত্মসাতের জন্য প্রতারণা শুরু করেন। এক পর্যায়ে মাহবুব ব্রাদার্সকে ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে কাজের বিপরীতে সিটি করপোরেশনের রক্ষিত জামানতের ১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা তিনি আত্মসাৎ করেন।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বিদেশে থাকায় মামলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সিটি করপোরেশনের গণ-সংযোগ কর্মকর্তা শাহাব উদ্দিন শিহাব দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘মামলার বিষয়টি আমাদের জানা নেই।’

Free Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
online free course